নর্টন মোটরসাইকেলের ইলেকট্রিকের পথে যাত্রাঃ নতুন মডেল তৈরির জন্য ৩০ মাসের একটি নতুন প্রজেক্ট হাতে নেয়া হচ্ছে   

নর্টন মোটরসাইকেলের ইলেকট্রিকের পথে যাত্রাঃ নতুন মডেল তৈরির জন্য ৩০ মাসের একটি নতুন প্রজেক্ট হাতে নেয়া হচ্ছে   

যুক্তরাজ্যে সরকারি সহযোগিতায় নর্টন নতুন ডিজাইনের এবং ইলেকট্রিক মোটরবাইক তৈরির জন্য নতুন প্ল্যান প্রকাশ করেছে।TVS এর মালিকানায় এই প্রতিষ্ঠানটি বলছে তারা সবসময় তাদের লক্ষ্য রাখে সামনের দিকে, তারা ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলের ভেতর নর্টনের ডিজাইনের মাধ্যমে রেসিং পারফর্মেন্স, ট্যুরিং সক্ষমতা এবং সহজে নিয়ন্ত্রণযোগ্য বাইক তৈরির দিকে সর্বোচ্চ নজর দিচ্ছে।

যদিও আপাতদৃষ্টিতে কাজটি বৃহৎ মনে হচ্ছে তথাপি নর্টন কিন্তু কাজটি একা করবে না। Delta Cosworth, ইলেকট্রিক পাওয়ারট্রেন ডিভিশনের নামকরা ইঞ্জিন প্রস্তুতকারক এর স্টার্ট এবং ব্যাটারি প্যানেল তৈরি করবে। একটি ইলেকট্রিক বাইকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হোল এর পাওয়ার সোর্স, যা এর অধিকাংশ ভর ধারণ করে।

WMG, ইউনিভার্সিটি অফ ওয়ারউইকও নর্টনের সহযোগী হিসেবে কাজ করবে। তারা দেখবে মূলত ব্যাটারি টেকনোলজি, মডেলিং এবং টুল চেইন ডেভেলপমেন্ট।

নর্টনের সি ই ও ডঃ রবার্ট হেণ্টশেল বলেন,’’ এই যুগান্তকারী ফাণ্ডিং ইনভেস্টমেন্ট আমাদের ব্র্যান্ডের জন্য একটি মাইলস্টোন, যা সূচনা করবে আমাদের ইলেকট্রিফিকেশনের যাত্রা এবং সাথে সাথে বাস্তবায়ব করবে আমাদের দশ বছর মেয়াদী পণ্য পরিকল্পনার।’’

তিনি আরও বলেন,’’ অত্যাধুনিক আভিজাত্যের পথ প্রদর্শক নর্টন কখনওই চ্যালেঞ্জ নিতে ভয় পায় না। ব্রিটিশ ঐতিহ্য ধরে রেখে ভবিষ্যতের জন্য যানবাহন তৈরিতে নর্টন সবসময় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এর সাথে সাথে যুক্তরাজ্য সরকারের নেট জিরো এমিশন অটোমোটিভ ফিগার এর মিশনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছি।’’

‘’ আমাদের বিশ্বখ্যাত সহযোগীদের সাথে সাথে আমরাও আত্মবিশ্বাসী যে, আমাদের প্রজেক্ট জিরো এমিশন গ্রাহকদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে ইভি প্রোডাক্ট তৈরি করবে সাথে সাথে কনভেনশনাল এবং ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলের মধ্য বিদ্যমান বিতর্কের অবসান ঘটাবে।’’

৩০ মাস ব্যাপি এই প্রজেক্ট মিডল্যান্ডে আর এন্ড ডি এবং ম্যানুফ্যাকচারিং ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করবে। এটা নিঃসন্দেহে দারুণ খবর। কিন্তু নর্টন এটাও বলছে যে তারা মোটরসাইকেল তৈরিতে গ্লোবাল টেকনোলজি লিডার হয়ে যুক্তরাজ্যের নাম আরও সমৃদ্ধ করতে চায়।

ব্যাটারি, মোটর, চেসিস,কুলিং অয়েল এবং বাসায় চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা এই সবকিছুই তারা তৈরি করছে বিশ্বের বুকে EV Components তৈরির ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের আলাদা একটা অবস্থান সৃষ্টির কথা মাথায় রেখে।

APC এর চিফ এক্সিকিউটিভ Ian Constance সাথে যোগ করেন- যুক্তরাজ্যের নেট জিরো এমিশন এর লক্ষ্যে আজকের এই প্রজেক্টে বিনিয়োগ প্রযুক্তির প্রসারকে আরও বেগবান করবে। যুক্তরাজ্য শুধু মোটরযানের উপর নয় বরঞ্চ সমগ্র যোগাযোগ ব্যবস্থা নিয়েই তারা এই চিন্তা করেছে। 

নর্টন একটি আইকনিক ব্রিটিশ ব্র্যান্ড যার রয়েছে গর্ব করার মত ইতিহাস। মোটরসাইকেল তৈরি থেকে শুরু করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সহযোগিতা এমনকি পৃথিবীর প্রথম সুপারবাইক উৎপাদন সবকিছুতেই নর্টন ছিল। এখন তারা ভবিষ্যতের জন্য যুগপৎ পারফর্মেন্স এবং রেঞ্জ প্রদান করবে এমন ইলেকট্রিক বাইকও প্রস্তুত করবে। এর উৎপাদনের শুরুটা হবে যুক্তরাজ্যে যা উচ্চ দক্ষতাসম্পন্ন কর্মসংস্থান এবং সবুজ বিপ্লব নিশ্চিত করবে।

এই প্রজেক্ট টিমে ৬ টি সহযোগী প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা বিভিন্ন অংশের ডিজাইন করবেন। Delta Cosworth এবং WMG যৌথভাবে ব্যাটারি থেকে শক্তি পেছনের চাকায় স্থানান্তর করে কিভাবে উচ্চ গতি নিশ্চিত করা যায় তা নিয়ে কাজ করবে।

পোর্টসমাউথ ভিত্তিক কম্পোজিট এবং কার্বন ফাইবার ম্যানুফ্যাকচারিং ফার্ম  Formaplex Technologies এর বডি ম্যাটেরিয়াল এবং M & I Material দেখবে ডাই ইলেকট্রিক কুলিং সিস্টেমটি যার মাধ্যমে ইলেকট্রিক যন্ত্রাংশগুলো দ্রুত ঠাণ্ডা করা যায়।

Indra Renewable Technologies বাসায় চার্জ দেয়ার প্রযুক্তি তৈরিতে বিশেষ দক্ষ; তারা কাজ করবে এই মোটরসাইকেলগুলোর হোম টু ইভি প্রযুক্তির উন্নয়নে।

বাইকগুলো দেখতে কেমন হবে কিংবা এর দাম কেমন হবে তা নিয়ে নর্টনের সি ই ও ডঃ রবার্ট হেণ্টশেল এখনও কিছু জানান নি। এই বিষয়ে নতুন কোন আপডেট পেলেই আমরা আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব। 



Leave a comment

Your email address will not be published.