ঢাকার সেরা ১০টি মোটরসাইকেল পার্টস-এর শপ

ঢাকার সেরা ১০টি মোটরসাইকেল পার্টস-এর শপ

একটি মোটরসাইকেল কিভাবে পারফর্ম করবে তা অনেকাংশেই নির্ভর করে এর অভ্যন্তরীন ও বাহ্যিক মোটরপার্টস এর উপর।

কোনো বাইকের পার্টস যতটা হেলথি সেই বাইকের রাইডার কম্ফোরটেবিলিটি, ডিউরেবিলিটি, অ্যান্ড সেফটি তততাই বেশি।

একজন বাইকারের নিজের বাইক সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনা থাকা জরুরি। কেননা, বাইকার যেমন তার নিজের প্রটেকশন এর জন্যে হেলমেট কিংবা জেকেট পরিধান করে, ঠিক তেমনি বাইকের সুরক্ষার কথা চিন্তা করটাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

এই আরটিকেলটি সকল শ্রেণীর বাইকারদের জন্য প্রযোজ্য। বাইকের স্পেসিফিকেশন সহ মটর পার্টসের ডিটেইলস জানা থাকলে সুবিধা হলো, আপনি সহজেই জানবেন বাইকের কোন পার্টস এর স্পেসিফিক প্রব্লেম এ কি সলিউশন রয়েছে।

অল্টারনেটিভ অপশন কি রয়েছে। বেস্ট পার্টস কোথায় পাওয়া যায় এবং দামের বেপারেও যথেষ্ট ভালো আইডিয়া হয়ে যাবে।

উপরোক্ত এই বিষয় গুলোর উপর ভালো নলেজ থাকা মানে আপনি একজন প্রো-বাইকার।

বাংলাদেশের শুধু মাত্র ঢাকার একটি নির্দিষ্ট এলাকার কথাই যদি ধরা হয় যেমনঃ বংশাল, সেখানে রয়েছে অগণিত মোটর পার্টস এর দোকান।

সেখান থেকে শুধুমাত্র ১০ টি বেস্ট দোকানের নাম বলা কঠিন হলেও, চেষ্টা করা হয়েছে আপনার।

আপনাদের জন্য বেস্ট শপ গুলকেই শর্টলিস্ট করা। এগুলো হচ্ছে ফিসিক্যাল শপ, যেখানে আপনি যেকোনো ধরনের মোটর পার্টস ও বাইকের এক্সেসরিস গুলো পেয়ে থাকবেন।

১.  Bike Spares BD – (১/২, কসাই টুলি, বংশাল রোড – ১০০০)

২. Bongshal.com – (৫১, ১ বংশাল রোড)

৩. Bike Parts Market – (পিসি৯৩+২পি৯, মকিম বাজার রোড, ঢাকা – ১০০০।)

৪. Fair Auto Mirpur – (সেনশন ৬, ব্লক – কেএ, প্লট-৩২/৩, মিরপুর ১০)

৫. Moto Fusion BD – (১৪২ বংশাল রোড, মকিম বাজার রোড, ঢাকা – ১০০০)

৬. Icon Auto – (হাউস – ১৩, ব্লক – কে এ, সেকশন – ০৬, বাউন্ডারি রোড, ঢাকা – ১২১৬)

৭. Parts Bazar Bangladesh (১০৪ বংশাল রোড, মকিম বাজার, ঢাকা – ১০০০)

৮. Rightstop Motor Gear and Accessories – (২২/১, মাজেদ সরদার রোড, ঢাকা – ১১০০)

৯. Bike Fair – (৫৯২, সি/এ মালিবাগ চৌধুরীপাড়া রোড, ঢাকা – ১২১৯)

১০. Mr. Bike Parts (১৩৬/১ বংশাল রোড, মকিম বাজার রোড, ঢাকা – ১০০০)

বাইকের প্রয়োজনীয় কিছু পার্টস এর নাম

১. চ্যসিস (Chassis)

  • ফ্রেম (Frame)
  • সাসপেনশন (Suspension)
  • ফুয়েল ট্যাংক (Fuel Tank)
  • ফ্রন্ট ফরক (Front Fork)

২. ইঞ্জিন (Engine)

৩.  ট্রান্সমিসন (Transmission)

৪.  ফাইনাল ড্রাইভ (Final drive)

  • চেইন লুব্রিকেসন (Chain lubrication)

৫. হুইলস (Wheels)

৬. টায়ারস (Tires)

৭. ব্রেকস (Brakes – Disc/Drum)

৮. ইন্সট্রুমেন্টস (Instruments)

৯. লাইটিং সিস্টেম (Lighting system)

১. ইগনিশন কী সুইচ (Ignition key Switch)

এছাড়াও কিছু পপুলার ই-কমার্সের নাম উল্লেখযোগ্য

ঢাকায় মটর পার্টস শপ (motor parts shops in Dhaka) ছাড়া কিছু ই-কমারস সাইটও আছে যেখান থেকে আপনি সহজেই আপনার পছন্দসই অথেনটিক মোটরপার্টস অ্যান্ড এক্সেসরিস অর্ডার করতে পারেন।

১. Bangshal Republic of Bike

২. Daraz

৩. Bike Part BD

৪. Bike Spares BD

৫. Icon Auto

৬. Motor Cycle Valley

মোটর পার্টস কেনার সময় যে বিষয়গুলো খেয়ালা রাখা প্রয়োজন

নিজের বাইকের জন্য পারফেক্ট পার্টস কেনা ও চেঞ্জ করা অবশ্যই একজন চিন্তার বিষয়। একটি নতুন কিংবা পুরাতন বাইকের জন্য নন ব্রান্ডেড পার্টস কিংবা এক্সেসরিস এর বব্যহার খুবই ঝুকিপূর্ণ।

তাই যাচাই, বাছাই করে বাইকের জন্য হাই-এন্ড ব্রান্ড এর কিছু পার্টস নিশ্চিত করা একজন বাইকারের গুরু দায়িত্ব।

একজন বাইক চালক জিবন-মরণ ঝুকি নিয়ে বাইক চালান। তাই তার রাইডিং সেফটি ও ফেলক্সিবিলিটি নিশ্চিত করতে পারাটা অত্যাবশ্যকীয়।

খুব স্বভাবতই বাজারে অনেক গুলো ব্রান্ড আছে তবে সবগুলো ট্রাস্টেড ব্রান্ড নয়। মোটরসাইকেল এর ক্ষেত্রে কোনো কম্প্রোমাইজ গ্রহণযোগ্যতা পাওয়া উচিত নয়।

অটোমটিভ ইন্ডাস্ট্রি তে কিছু অসাধু ব্যবসায়ি আছে যারা আপনাকে নন-জেনুইন কিংবা ফেইক স্পেয়ার পার্টস অফার করবে যেগুলো আপনার কাছে অবিকল অরিজিনাল স্পেয়ার পার্টস এর মতনই মনে হতে পারে।

তাই মোটর পার্টস পারচেস করেন তবে অবশ্যই কিছু বিষয় অবগত থাকা ভালো।

সিরিয়াল নাম্বার (Serial Number)

যেকোনো অটো-পার্টস যদি জেনুইন হয় তবে অবশ্যই এর গায়ে সিরিয়াল নাম্বার লাগানো থাকবে যা থেকে ট্র্যাক করা সম্ভব প্রোডাক্টি অরিজিনাল নাকি না। তাছারা, অরিজিনাল প্রোডাক্ট এর একটি হলমার্ক থাকে যা নকল করা অসম্ভব।

আরএফাআইডি ট্যাগস (RFID Tags)

প্রস্তুতকারক / মেনুফ্যাকচারাররা একটি ট্যাগ নাম্বার প্রোভাইড করে স্পেয়ার পার্টসের সাথে যা দিয়ে তারা ট্র্যাক করে দেখতে পারে এন্ড-কাস্টমারের হাতে অরিজিনাল প্রোডাক্ট পৌছেছে কিনা।

বার কোড (Bar Code)

প্রতিটি স্পেয়ার পার্টস এ থাকবে একটি ইউনিক বার কোড কিংবা কিউআর কোড (QR Code) থাকে স্ক্যান প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিশ্চিত করা সম্ভব যে প্রোডাক্টটি জেনুইন কিনা।

উপরোল্লেখিত সকল অনলাইন ও অফ-লাইন পার্টস বিক্রেতারা অথেন্টিক প্রোডাক্ট বিক্রি করে থাকে। আপনি এদের কাছে পাবেন হাই-এন্ড ও সুপেরিওর কোয়ালিটি প্রোডাক্ট।

ঢাকার মতন একটি জনবহুল এলাকায় বাইকারের সংখ্যা প্রচুর যা রাস্তায় নামলেই বুঝা যায়। এই বিশাল সংখ্যক বাইকের জন্য ওলিতে – গলিতে সার্ভিসিং সেন্টারও রয়েছে অসংখ্য।

তবে অথেন্টিক মোটর পার্টস এর শপ এর বেপারটা পুরোপুরি আলাদা।

আপনি যদি রিসোনেবল প্রাইস এ অথেন্টিক ও ভালো নামের কিংবা লাক্সারিয়াস মোটর পার্টস ও এক্সেসরিস চান তাহলে অবশ্যই এই ঠিকানাগুলো ভিজিট করে দেখতে পারেন।

আশা করা যায় আপনি আশাহত হবেন না।

FAQs about motor parts shops in Dhaka

1. কি করে বুঝবো যে স্পেয়ারপার্টসটি জেনুইন ?

প্রতিটি স্পেয়ার পার্টস এ থাকবে একটি ইউনিক বার কোড কিংবা কিউআর কোড (QR Code) থাকে স্ক্যান প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিশ্চিত করা সম্ভব যে প্রোডাক্টটি জেনুইন

2. আরএফাআইডি ট্যাগস কি করে ?

প্রস্তুতকারক / মেনুফ্যাকচারাররা একটি ট্যাগ নাম্বার প্রোভাইড করে স্পেয়ার পার্টসের সাথে যা দিয়ে তারা ট্র্যাক করে দেখতে পারে এন্ড-কাস্টমারের হাতে অরিজিনাল প্রোডাক্ট পৌছেছে কিনা।

3. Please tell me about some good motor parts shops in Dhaka

প্রতিটি বাইক এর সার্ভিস সেন্টার গুলোতে পেতে পারেন জেনুইন পার্টস

4. Is there any E-commerce website for genuine parts?

ই ই-কমারস সাইটগুলো থেকে আপনি সহজেই আপনার পছন্দসই অথেনটিক মোটরপার্টস অ্যান্ড এক্সেসরিস অর্ডার করতে পারেন।

১. Bangshal Republic of Bike

২. Daraz

৩. Bike Part BD

৪. Bike Spares BD

5.সিরিয়েল নম্বর কোথায় থাকে ?

জেনুইন স্পেয়ার পার্টস এর বাক্স এ গায়ে সিরিয়াল নাম্বার লাগানো থাকবে

Similar Advices