সচেতন ক্রেতাদের জন্য হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার

18 May, 2023   
সচেতন ক্রেতাদের জন্য হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার

প্রতিদিনই ঢাকার ট্রাফিক ব্যবস্থার চরম অবনতি ঘটছে। এমন পরিস্থিতিতে এই নগরীতে বাইরে বের হওয়ার সবচেয়ে ভাল উপায় হচ্ছে ছোট গাড়ি ব্যবহার করা। এ কারণে বাংলাদেশের মতো বিভিন্ন দেশে স্কুটারের মতো ছোট গাড়ি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। চীনের হাউজুয়ে নামের একটি মোটরসাইকেল ও স্কুটার প্রস্তুতকারী কোম্পানি ইতোমধ্যে তাদের প্রস্তুতকৃত মোটরসাইকেল ও স্কুটারের জন্য বেশ সুখ্যাতি অর্জন করেছে। বাইক বিক্রির দিক থেকে গত দশ বছর ধরে কোম্পানিটি চীনের এক নম্বর কোম্পানি হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। ব্রান্ড ইমেজ, স্বল্প মূল্য, গ্রাহক সন্তুষ্টি, পণ্যের গুণগত ও সেবার মানের কারণে হাউজুয়ে ‘ফাইভ স্টার’এক্রেডিটেশন লাভ করেছে। পরীক্ষামুলকভাবে আমরা ‘হাউজুয়ে লিন্ডি’নামের একটি গাড়ি চালু করেছিলাম। নিচে এর মূল্যায়ন তুলে ধরছি।

DSC_0040

 

কেন কিনবেন হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার?

হাউজুয়ে’র লিন্ডি স্কুটারটি অত্যন্ত আকর্ষণীয়। এর সামনের দিকের তির্যক (এঙ্গুলার) ডিজাইন এটিকে স্পষ্টই স্বতন্ত্র হিসেবে উপস্থাপন করেছে। বাইকটির সিলুয়েট শুধু দেখার সৌন্দর্য্যরে জন্য নয় বরং এ্যারোডায়নামিক দক্ষতার কারণে এটি অনেক দুরত্ব পর্যন্ত আরামদায়ক ভ্রমনের উপযোগী। ডুয়েল হ্যালোজেন এইচএস ওয়ান হেডলাইটটি রাতেরবেলা চমৎকার এবং আকর্ষণীয় দেখায় এবং অন্য হেডলাইটের তুলনায় ২০ ভাগ বেশি আলো ছড়ায়। এর দুটি লাইফটাইম রেগুলার বাল্বও রয়েছে। পিছনের এলইডিলাইটটিও সামনের দিকের মতো একই রকম ডিজাইন ও আকর্ষণীয় করে তুলেছে। স্টেইনলেস স্টিলের উপর আবরণ দিয়ে এর ক্যাপগুলো এতো সুন্দরভাবে বন্ধ করা হয়েছে যে এটি স্পর্শ করতেও ভালো অনুভূত হয় এবং দেখতেও ভালো লাগে।

IMG_8335

লিন্ডি চালাতে গিয়ে আপনার দারুন অভিজ্ঞতা হবে।এটি চালাতে এমনই আরামদায়ক যে, বাইকটির চালকের বসার অবস্থান খুব বেশি সামনের দিকে না এবং ঢাকার খানা-খন্দেভরা (গর্ত) রাস্তায় কিছুদিন বাইকটি চালানোর পর আপনি কোন ধরণের ব্যাক পেইন অনুভব করবেন না।দীর্ঘ সময় এই স্কুটারটি চালানোর পরও আপনি ব্যাকপেইনমুক্ত থাকবেন। কারণ লিন্ডিতে মনো-ক্রস সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে।এই হাই গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স সংযুক্ত থাকার কারণে বাইকটি চালাতে গিয়ে রাস্তায় স্পিডব্রেকারে কোন সমস্যা হয় না এবং খুব সুন্দরভাবেই চালানো যায়।

বাইকটিতে বসার আসনটি বেশ নরম ও আরামদায়ক এবং চালকের পেছনের যাত্রীর বসার আসনটির তুলনায় চালকের আসনটি কিছুটা নিচু।যাতে খাটো যাত্রীরা খুব সহজে এটিতে উঠতে পারেন।চালকের মতো পেছনে বসা যাত্রীও আনন্দদায়ক ভ্রমণ উপভোগ করতে পারবেন, কারণ এর পেছনের দিকে রয়েছে ভাজ করা ফুটরেস্ট।বাইকটির পেছনের দিকে ধরার জন্য যে হাতল রয়েছে তা বেশ শক্ত ও মজবুত এবং নিরাপত্তার জন্যও এটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।নিরাপত্তার কথা যদি বলি, তাহলে বলতে হয় যে, লিন্ডির রয়েছে উন্নত মানের ম্যাগনেটিক লক যা চুরি হওয়া থেকে আপনার বাহনটিকে রক্ষা করবে।সামনের দিকের ডিস্ক ব্রেকার এবং পিছনের ড্রাম ব্রেক দুটিই মজবুত ও শক্তিশালী এবং এটি দীর্ঘ দিন ধরে টেকসই হবে।স্কুটারের চালকের জন্য এবং পিছনে বসা যাত্রী উভয়ের পা রাখার জন্য প্রশস্ত জায়গা রয়েছে, তাই একদিন চালানোর পরই আপনার হাটুতে ব্যাথা পাওয়ার কোন ভয় নেই বা এ নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

 

 

হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার ফিচার

১২৫ সিসি’র ফোর স্ট্রোক বাইকটির সিঙ্গেল সিলিন্ডার সমতল ইঞ্জিনটি বাতাসের মাধ্যমে ঠান্ডা হয়। এর সর্বোচ্চ ৬.২ কিলোওয়াট শক্তি উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে এবং ঘূর্ণন(টর্ক) ক্ষমতা ৯.০ এনএম। স্কুটারটি ৬.২ কিলোওয়াট শক্তি উৎপাদন ক্ষমতা আকর্ষণহীন মনে হলেও লিন্ডি স্কুটার দিয়ে আপনি মাত্র ১০ সেকেন্ডে শূণ্য কিলোমিটার পার আওয়ার থেকে ৬০ কিলোমিটার পার আওয়ার পর্যন্ত গতি তুলতে পারবেন। আমাদের টার্গেটকৃত গ্রাহকদের জন্য গতি যদিও মূখ্য বিষয় নয়, মূল বিবেচ্য বিষয় হচ্ছে এরদক্ষতা এবং সার্ভিস।

শুধু গতিই নয়, হাউজুয়ে লিন্ডির রয়েছে ৫.৮ লিটারের একটি তেলের ট্যাঙ্ক এবং এই বাইকটি দিয়ে প্রতি লিটার তেলে আপনি ৫৭ কিলোমিটার পথ যেতে পারবেন। লিন্ডির ১০৬ কোজি ওজনের কারণে এর তেল অনেকটা কম খরচ হয়। স্কুটারটি একজন যাত্রী নিয়ে চালানো বেশ আনন্দদায়ক মনে হবে। স্কুটারের গতি খুবসহজেই বাড়ানো যায় এবং গতি বৃদ্ধি ও চালানোর ক্ষেত্রেও ভালো ব্যালান্স (সামঞ্জস্য) থাকে। আমরা খুব সহজেই একটি ব্যস্ত সড়কে স্কুটারটি ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘোরাতে পারি।এজন্য স্ক্রুটারটি থামাতে হয় না এমনকি ব্যালান্স রাখার জন্য পা নামাতে হয় না। স্ক্রুটারটিতে স্বয়ংক্রিয় গিয়ার এবং ক্লাচ থাকায় অনভিজ্ঞ বা শিক্ষানবিশরাও এটি স্বাচ্ছন্দ্যে চালাতে পারবেন। এটি চালাতে গিয়ে তাদের কোন সমস্যায় পড়তে হয় না।

এর সংরক্ষণ পদ্ধতি (স্টোরেজ অপশন) লিন্ডিকে আরও প্রয়োজনীয় এবং কার্যকরী বাহনে পরিণত করেছে। এর সিটের নিচে হেলমেট কিংবা একটি ব্যাগ রাখার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে। যেখানে অনায়াসেই আপনি একটি হেলমেট বা ব্যাগের মতো যে কোন কিছু রাখতে পারবেন। এখানে ১০ কেজি ওজনের যে কোন বস্তু রাখা যাবে এবং মুদিদোকান থেকে কেনাকাটার পর অনায়াসে এর মাধ্যমে বহন করা যাবে। পিছনের ক্যারিয়ারটির ধারণ ক্ষমতা ৫ কেজি পর্যন্ত এবং সামনের বক্সটির ধারণ ক্ষমতা ১.৫ কেজি।

IMG_8289 IMG_8345 IMG_8354IMG_8292

 

উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন হাউজুয়ে লিন্ডির স্পোর্টি স্কুটারটি অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে মাত্র এক লাখ ২০ হাজার টাকায় সুপরিচিত একটি কোম্পানি বাজারে নিয়ে আসছে। লিন্ডি স্কুটারটি দেখতে চমৎকার এবং ব্যস্ত ঢাকার যানবাহনে চলাচলকারী মানুষদের চাহিদা পূরণে সক্ষম। এর উন্নতমানের হ্যান্ডল এবং কার্ভের সহজবোধ্যতার কারণে ট্রাফিকজ্যামের ভিতর দিয়ে খুব স্বল্প সময়ে এগিয়ে যাওয়া যায়। প্রতিটি গ্রাহককে হাউজুয়ে স্কুটারের সাথে উপহার হিসেবে একটি হেলমেট এবং চাবির রিং দেয়া হয়। এর সাথে আপনি পাচ্ছেন ছয় বছরের ওয়ারেন্টি অথবা ২০ হাজার কিলোমিটার পর্যন্ত ওয়ারেন্টি (যেটি প্রথমে পূর্ণ হবে) এবং প্রথম ১০ মাসের মধ্যেই পাচ্ছেন চার বার ফ্রি সার্ভিস।শিক্ষার্থী এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য পৃথক স্কিম এবং সমান মাসিক কিস্তিতে (ইক্যুয়েটেড মানথলি ইনস্টলম্যান্ট বা ইএমআই) পরিশোধের মাধ্যমে লিন্ডে সকলের জন্য আরও সাশ্রয়ী করা হয়েছে।

১.সুদবিহীন মাসিক কিস্তি : এককালীন ৫০ শতাংশ জমা দিতে হবে এবং বাকী টাকা তিনটি সমান কিস্তিতে কোন সুদ ছাড়াই পরিশোধ করা যাবে।
২.দীর্ঘমেয়াদী কিস্তি: এককালীন ২০ শতাংশ জমা দিতে হবে এবং বাকী টাকা ৬ থেকে ২৪ মাসের মধ্যে মাসিক সমান কিস্তিতে ১৪.৫ থেকে ১৬.৯ শতাংশ সুদে পরিশোধকরা যাবে।

DSC_0034 DSC_0051 DSC_0041 DSC_0042

প্রতিদিনই ঢাকার ট্রাফিক ব্যবস্থার চরম অবনতি ঘটছে। এমন পরিস্থিতিতে এই নগরীতে বাইরে বের হওয়ার সবচেয়ে ভাল উপায় হচ্ছে ছোট গাড়ি ব্যবহার করা। এ কারণে বাংলাদেশের মতো বিভিন্ন দেশে স্কুটারের মতো ছোট গাড়ি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। চীনের হাউজুয়ে নামের একটি মোটরসাইকেল ও স্কুটার প্রস্তুতকারী কোম্পানি ইতোমধ্যে তাদের প্রস্তুতকৃত মোটরসাইকেল ও স্কুটারের জন্য বেশ সুখ্যাতি অর্জন করেছে। বাইক বিক্রির দিক থেকে গত দশ বছর ধরে কোম্পানিটি চীনের এক নম্বর কোম্পানি হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। ব্রান্ড ইমেজ, স্বল্প মূল্য, গ্রাহক সন্তুষ্টি, পণ্যের গুণগত ও সেবার মানের কারণে হাউজুয়ে ‘ফাইভ স্টার’এক্রেডিটেশন লাভ করেছে। পরীক্ষামুলকভাবে আমরা ‘হাউজুয়ে লিন্ডি’নামের একটি গাড়ি চালু করেছিলাম। নিচে এর মূল্যায়ন তুলে ধরছি।

DSC_0040

 

কেন কিনবেন হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার?

হাউজুয়ে’র লিন্ডি স্কুটারটি অত্যন্ত আকর্ষণীয়। এর সামনের দিকের তির্যক (এঙ্গুলার) ডিজাইন এটিকে স্পষ্টই স্বতন্ত্র হিসেবে উপস্থাপন করেছে। বাইকটির সিলুয়েট শুধু দেখার সৌন্দর্য্যরে জন্য নয় বরং এ্যারোডায়নামিক দক্ষতার কারণে এটি অনেক দুরত্ব পর্যন্ত আরামদায়ক ভ্রমনের উপযোগী। ডুয়েল হ্যালোজেন এইচএস ওয়ান হেডলাইটটি রাতেরবেলা চমৎকার এবং আকর্ষণীয় দেখায় এবং অন্য হেডলাইটের তুলনায় ২০ ভাগ বেশি আলো ছড়ায়। এর দুটি লাইফটাইম রেগুলার বাল্বও রয়েছে। পিছনের এলইডিলাইটটিও সামনের দিকের মতো একই রকম ডিজাইন ও আকর্ষণীয় করে তুলেছে। স্টেইনলেস স্টিলের উপর আবরণ দিয়ে এর ক্যাপগুলো এতো সুন্দরভাবে বন্ধ করা হয়েছে যে এটি স্পর্শ করতেও ভালো অনুভূত হয় এবং দেখতেও ভালো লাগে।

IMG_8335

লিন্ডি চালাতে গিয়ে আপনার দারুন অভিজ্ঞতা হবে।এটি চালাতে এমনই আরামদায়ক যে, বাইকটির চালকের বসার অবস্থান খুব বেশি সামনের দিকে না এবং ঢাকার খানা-খন্দেভরা (গর্ত) রাস্তায় কিছুদিন বাইকটি চালানোর পর আপনি কোন ধরণের ব্যাক পেইন অনুভব করবেন না।দীর্ঘ সময় এই স্কুটারটি চালানোর পরও আপনি ব্যাকপেইনমুক্ত থাকবেন। কারণ লিন্ডিতে মনো-ক্রস সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে।এই হাই গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স সংযুক্ত থাকার কারণে বাইকটি চালাতে গিয়ে রাস্তায় স্পিডব্রেকারে কোন সমস্যা হয় না এবং খুব সুন্দরভাবেই চালানো যায়।

বাইকটিতে বসার আসনটি বেশ নরম ও আরামদায়ক এবং চালকের পেছনের যাত্রীর বসার আসনটির তুলনায় চালকের আসনটি কিছুটা নিচু।যাতে খাটো যাত্রীরা খুব সহজে এটিতে উঠতে পারেন।চালকের মতো পেছনে বসা যাত্রীও আনন্দদায়ক ভ্রমণ উপভোগ করতে পারবেন, কারণ এর পেছনের দিকে রয়েছে ভাজ করা ফুটরেস্ট।বাইকটির পেছনের দিকে ধরার জন্য যে হাতল রয়েছে তা বেশ শক্ত ও মজবুত এবং নিরাপত্তার জন্যও এটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।নিরাপত্তার কথা যদি বলি, তাহলে বলতে হয় যে, লিন্ডির রয়েছে উন্নত মানের ম্যাগনেটিক লক যা চুরি হওয়া থেকে আপনার বাহনটিকে রক্ষা করবে।সামনের দিকের ডিস্ক ব্রেকার এবং পিছনের ড্রাম ব্রেক দুটিই মজবুত ও শক্তিশালী এবং এটি দীর্ঘ দিন ধরে টেকসই হবে।স্কুটারের চালকের জন্য এবং পিছনে বসা যাত্রী উভয়ের পা রাখার জন্য প্রশস্ত জায়গা রয়েছে, তাই একদিন চালানোর পরই আপনার হাটুতে ব্যাথা পাওয়ার কোন ভয় নেই বা এ নিয়ে কোন দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

 

 

হাউজুয়ে “লিন্ডি” স্পোর্টি স্কুটার ফিচার

১২৫ সিসি’র ফোর স্ট্রোক বাইকটির সিঙ্গেল সিলিন্ডার সমতল ইঞ্জিনটি বাতাসের মাধ্যমে ঠান্ডা হয়। এর সর্বোচ্চ ৬.২ কিলোওয়াট শক্তি উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে এবং ঘূর্ণন(টর্ক) ক্ষমতা ৯.০ এনএম। স্কুটারটি ৬.২ কিলোওয়াট শক্তি উৎপাদন ক্ষমতা আকর্ষণহীন মনে হলেও লিন্ডি স্কুটার দিয়ে আপনি মাত্র ১০ সেকেন্ডে শূণ্য কিলোমিটার পার আওয়ার থেকে ৬০ কিলোমিটার পার আওয়ার পর্যন্ত গতি তুলতে পারবেন। আমাদের টার্গেটকৃত গ্রাহকদের জন্য গতি যদিও মূখ্য বিষয় নয়, মূল বিবেচ্য বিষয় হচ্ছে এরদক্ষতা এবং সার্ভিস।

শুধু গতিই নয়, হাউজুয়ে লিন্ডির রয়েছে ৫.৮ লিটারের একটি তেলের ট্যাঙ্ক এবং এই বাইকটি দিয়ে প্রতি লিটার তেলে আপনি ৫৭ কিলোমিটার পথ যেতে পারবেন। লিন্ডির ১০৬ কোজি ওজনের কারণে এর তেল অনেকটা কম খরচ হয়। স্কুটারটি একজন যাত্রী নিয়ে চালানো বেশ আনন্দদায়ক মনে হবে। স্কুটারের গতি খুবসহজেই বাড়ানো যায় এবং গতি বৃদ্ধি ও চালানোর ক্ষেত্রেও ভালো ব্যালান্স (সামঞ্জস্য) থাকে। আমরা খুব সহজেই একটি ব্যস্ত সড়কে স্কুটারটি ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘোরাতে পারি।এজন্য স্ক্রুটারটি থামাতে হয় না এমনকি ব্যালান্স রাখার জন্য পা নামাতে হয় না। স্ক্রুটারটিতে স্বয়ংক্রিয় গিয়ার এবং ক্লাচ থাকায় অনভিজ্ঞ বা শিক্ষানবিশরাও এটি স্বাচ্ছন্দ্যে চালাতে পারবেন। এটি চালাতে গিয়ে তাদের কোন সমস্যায় পড়তে হয় না।

এর সংরক্ষণ পদ্ধতি (স্টোরেজ অপশন) লিন্ডিকে আরও প্রয়োজনীয় এবং কার্যকরী বাহনে পরিণত করেছে। এর সিটের নিচে হেলমেট কিংবা একটি ব্যাগ রাখার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে। যেখানে অনায়াসেই আপনি একটি হেলমেট বা ব্যাগের মতো যে কোন কিছু রাখতে পারবেন। এখানে ১০ কেজি ওজনের যে কোন বস্তু রাখা যাবে এবং মুদিদোকান থেকে কেনাকাটার পর অনায়াসে এর মাধ্যমে বহন করা যাবে। পিছনের ক্যারিয়ারটির ধারণ ক্ষমতা ৫ কেজি পর্যন্ত এবং সামনের বক্সটির ধারণ ক্ষমতা ১.৫ কেজি।

IMG_8289 IMG_8345 IMG_8354IMG_8292

 

উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন হাউজুয়ে লিন্ডির স্পোর্টি স্কুটারটি অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে মাত্র এক লাখ ২০ হাজার টাকায় সুপরিচিত একটি কোম্পানি বাজারে নিয়ে আসছে। লিন্ডি স্কুটারটি দেখতে চমৎকার এবং ব্যস্ত ঢাকার যানবাহনে চলাচলকারী মানুষদের চাহিদা পূরণে সক্ষম। এর উন্নতমানের হ্যান্ডল এবং কার্ভের সহজবোধ্যতার কারণে ট্রাফিকজ্যামের ভিতর দিয়ে খুব স্বল্প সময়ে এগিয়ে যাওয়া যায়। প্রতিটি গ্রাহককে হাউজুয়ে স্কুটারের সাথে উপহার হিসেবে একটি হেলমেট এবং চাবির রিং দেয়া হয়। এর সাথে আপনি পাচ্ছেন ছয় বছরের ওয়ারেন্টি অথবা ২০ হাজার কিলোমিটার পর্যন্ত ওয়ারেন্টি (যেটি প্রথমে পূর্ণ হবে) এবং প্রথম ১০ মাসের মধ্যেই পাচ্ছেন চার বার ফ্রি সার্ভিস।শিক্ষার্থী এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য পৃথক স্কিম এবং সমান মাসিক কিস্তিতে (ইক্যুয়েটেড মানথলি ইনস্টলম্যান্ট বা ইএমআই) পরিশোধের মাধ্যমে লিন্ডে সকলের জন্য আরও সাশ্রয়ী করা হয়েছে।

১.সুদবিহীন মাসিক কিস্তি : এককালীন ৫০ শতাংশ জমা দিতে হবে এবং বাকী টাকা তিনটি সমান কিস্তিতে কোন সুদ ছাড়াই পরিশোধ করা যাবে।
২.দীর্ঘমেয়াদী কিস্তি: এককালীন ২০ শতাংশ জমা দিতে হবে এবং বাকী টাকা ৬ থেকে ২৪ মাসের মধ্যে মাসিক সমান কিস্তিতে ১৪.৫ থেকে ১৬.৯ শতাংশ সুদে পরিশোধকরা যাবে।

DSC_0034 DSC_0051 DSC_0041 DSC_0042

Similar Advices



1 comment

Leave a comment

Please rate

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Buy New Bikesbikroy
Walton Stylex 1 2011 for Sale

Walton Stylex 1 2011

3,700 km
MEMBER
Tk 35,000
2 hours ago
Bajaj Boxer . 2024 for Sale

Bajaj Boxer . 2024

28,000 km
MEMBER
Tk 40,000
3 hours ago
TVS Apache RTR 2V 2022 Model for Sale

TVS Apache RTR 2V 2022 Model

7,000 km
verified MEMBER
verified
Tk 140,000
18 hours ago
হলি ড্রাগন ই-বাইক- 2024 for Sale

হলি ড্রাগন ই-বাইক- 2024

0 km
verified MEMBER
Tk 85,000
1 month ago
Scooter 2018 for Sale

Scooter 2018

18,500 km
MEMBER
Tk 150,000
22 hours ago
Buy Used Bikesbikroy
Runner Cheeta 2019 for Sale

Runner Cheeta 2019

40,000 km
MEMBER
Tk 45,000
3 minutes ago
Yamaha R15 V2 FI 2023 for Sale

Yamaha R15 V2 FI 2023

19,000 km
verified MEMBER
verified
Tk 228,500
1 week ago
Suzuki Hayate 2016 for Sale

Suzuki Hayate 2016

35,000 km
MEMBER
Tk 60,000
17 minutes ago
Walton Ranger 2024 for Sale

Walton Ranger 2024

30,000 km
MEMBER
Tk 44,000
24 minutes ago
Suzuki Max 100 1997 for Sale

Suzuki Max 100 1997

10,000 km
MEMBER
Tk 25,000
30 minutes ago
+ Post an ad on Bikroy