GPX Demon GR165R | দাম, স্পেক, ফিচার, ও অন্যান্য

GPX Demon GR165R  |  20 Nov, 2022
banner

GPX Demon GR165R (জিপিএক্স ডেমন জিআর ১৬৫আর) একটি দুর্দান্ত স্পোর্টস ক্যাটাগরির বাইক। বাইকটি ২০২১ সালে প্রথম বাংলাদেশে আমদানি এবং বাজারজাত করা হয়েছিল। এরপর থেকেই বাইকটি আমাদের দেশের বাইকারদের মধ্যে ক্রেজ তৈরী করে ফেলেছে। বাইকটির রাজকীয় স্টাইল, বিস্ট লুক যে কারো নজরে আটকাবে।

জিপিএক্স (GPX) থাইল্যান্ডের একটি শীর্ষস্থানীয় মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড। কোম্পানিটির প্রথম নাম ছিল এটিভি প্যান্থার, গঠিত হয়েছিল ২০০৭ সালে। ২০১১ সাল পর্যন্ত কোম্পানিটি মোটরসাইকেল গবেষণা এবং বাজার যাচাই করে প্যান্থার জাম্পার মটোক্রস অফ-রোড মোটরসাইকেল বাজারজাত করেছিল। ২০১৭ সালে নাম পরিবর্তন করে এটিভি প্যান্থার নামকরণ করে। কোম্পানিটি বর্তমানে ক্যাফে রেসার এবং অফ-রোড বাইকের পাশাপাশি স্পোর্টস এবং নেকেড স্পোর্টস মোটরবাইক উৎপাদন করছে।

GPX Demon GR165R বাইকটির ক্লিপ-অন হ্যান্ডেলবার, স্প্লিট সিট, ওভারঅল ডিজাইন একটি এগ্রেসিভ স্পোর্টি লুক দেয়। এই ব্লগে GPX Demon GR165R Review, দাম, স্পেসিফিকেশন, ফিচার, আরো কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সাথে ব্যবহারকারীদের জিপিএক্স ডেমন জি আর ১৬৫আর রিভিউ পর্যালোচনা করে বাইকটির সুবিধা এবং অসুবিধা বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়েছে। ব্লগের শেষ অংশে GPX Demon GR165R Price নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

GPX Demon GR165R Review অনুযায়ী বাইকটির ডিজাইন, ডাইমেনশন এবং ইঞ্জিন পারফরম্যান্স অসাধারণ। বাইকটির ইঞ্জিন ১৬৪.৬ সিসি’র সাথে ১৬ এনএম টর্ক-এ ১৭.৮ বিপিএইচ পাওয়ার উৎপন্ন করতে পারে। রিভিউ অনুযায়ী বাইকটির গড় মাইলেজ ৩৫ কিমি/লিঃ এবং সর্বোচ্চ গতি প্রায় ১৩০-১৪০ কিমি/ঘন্টা। যদিও জিপিএক্স দাবি করেছে বাইকটি ১৪৫ কিমি টপ স্পীড দেবে। ওভারঅল এটি একটি এট্রাক্টিভ স্পোর্টস বাইক।

মোটরসাইকেল কোম্পানি গুলো বাইকের স্টান্ডার্ড মাইলেজ, পারফরম্যান্স এবং স্থায়িত্ব বজায় রাখতে ইলেক্ট্রনিক ফুয়েল ইনজেকশন (EFI) ইঞ্জিন ব্যবহার করে। জিপিএক্স ডেমন জিআর ১৬৫আর বাইকেও ইলেক্ট্রনিক ফুয়েল ইনজেকশন (EFI) ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে।

 

GPX Demon GR165R বাইকের স্পোর্টি ডিজাইন এবং লুক

জিপিএক্স ডেমন জিআর ১৬৫আর বাইকটি, স্পোর্টি রেসার বাইক থিমের উপর চিন্তাভাবনা করে তৈরি করা হয়েছে। বাইকটির নজরকাড়া ডিজাইন যে কাউকে আকৃষ্ট করবে। এটি ইয়ং জেনারেশন এবং স্পোর্টস বাইক লাভারদের টার্গেট করে ডিজাইন এবং বাজারজাত করা হয়েছে।

বাইকটির ডুয়াল স্প্লিট হেডলাইট এবং আড়াআড়ি উইন্ডশীল্ড এটিকে একটি দুর্দান্ত স্পোর্টি লুক দেয়। বাইকের বিশালাকার ফুয়েল ট্যাঙ্ক সাথে স্টাইলিশ স্প্লীট সীট এটিকে আকর্ষনীয় বিস্ট লুক দেয়। বাইকের কালো কালার শেডের সাথে টোটাল ফেয়ারিং এটিকে দেখতে আরো গর্জিয়াস করেছে। এটি ট্রেলিস ফ্রেমে তৈরী করা হয়েছে, যা বাইকটিকে দীর্ঘদিন ঝকঝকে রাখতে সাহায্য করে। ওয়াইড ডিস্ক, স্পোর্টি এক্সহস্ট, টায়ার, ইঞ্জিন আউটলুক, ওভারঅল কম্বিনেশন মিলিয়ে এটি একটি চোখ ধাধানো ডিজাইনের বাইক। এটিতে এলইডি হেড লাইট এবং টেল লাইট ব্যবহার করা হয়েছে। বাইকটি বাজারে তিনটি ভিন্ন কালারে পাওয়া যাচ্ছে, ব্ল্যাক স্পেস, রেড ফায়ার এবং ম্যাট গ্রে। সগুলোই দেখতে গর্জিয়াস এবং এট্রাক্টিভ।

GPX Demon GR165R ইঞ্জিন পারফরম্যান্স এবং স্পেসিফিকেশন

GPX বাইক ইঞ্জিন পারফরম্যান্সের জন্য বিখ্যাত। জিপিএক্স ডেমন জিআর ১৬৫আর বাইকটি ১৬৪.৬ সিসি’র সিঙ্গেল সিলিন্ডার, লিকুইড-কুলড, ৪-স্ট্রোক এবং ২-ভালভ কম্বিনেশনের ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিন ৯০০০ আরপিএমে ১৭.৮ বিপিএইচ সর্বোচ্চ পাওয়ারের সাথে ৬০০০ আরপিএমে ১৬ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে। এই পাওয়ার এবং টর্ক বাইকটিকে স্মুথ এক্সেলারেশন এবং টপ স্পিডে দুর্দান্ত সাপোর্ট দেয়। এটিতে ফুয়েল ইনজেকশন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে এবং স্মুথ ট্রান্সমিশনের জন্য ইঞ্জিনে ৬-স্পীড গিয়ারবক্স সাথে বেসিক ওয়েট মাল্টি-প্লেট ক্লাচ সংযুক্ত করা হয়েছে। এই পাওয়ারে বাইকটি ৪ সেকেন্ডে ৬০+ কিঃমিঃ গতি তুলতে পারে। ইঞ্জিনের বোর এবং স্ট্রোক রেস্পেক্টিভলি ৬৫.৫ মিমিঃ এবং ৫৮.৮ মিমিঃ।

রিভিউ অনুযায়ী বাইকাররা ১৩০-১৩৫ কিমি/আওয়ার টপ স্পীড পেয়েছেন, এবং লিটারে ৩৫ কিঃমিঃ মাইলেজ পেয়েছেন। যদিও GPX’এর ক্লেইম অনুযায়ী টপ স্পিড ১৪৫ কিঃমিঃ/আওয়ার এবং মাইলেজ ৪০ কিঃমিঃ/লিঃ।

জিপিএক্স ডেমন জি আর ১৬৫আর ব্রেক এবং সাসপেনশন

রিভিউ অনুযায়ী জিপিএক্স ডেমন জিআর ১৬৫আর বাইকের সাসপেনশন সেটিংস দুর্দান্ত। এটিতে সামনে আপসাইড-ডাউন টেলিস্কোপিক শক অবসরবার ব্যবহার করা হয়েছে, যা বাইকটিকে যেকোনো উঁচু-নিচু এবং রুক্ষ রাস্তায় স্ট্যাবল এবং ব্যালান্স রাখতে সাহায্য করে। এতে সাবলীলভাবে বাইক কর্নারিং করা যায়। পেছনে বিখ্যাত ব্র্যান্ড ওয়াইএসএস’এর মনো-শক সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে, যা যেকোনো রাস্তায় বাইককে স্মুথ রাখে। বাইকের নিচের অংশে ট্রেলিস ফ্রেম দিয়ে কভার করা হয়েছে।

এই বাইকে সবচেয়ে নিরাপদ ব্রেকিং সিস্টেম সিবিএস বা এবিএস ইনস্টল করা হয়নি। এই বাইকটিতে বেসিক ডুয়াল ডিস্ক ব্রেক সেটআপ করা হয়েছে। তবে ব্রেকিং পাওয়ার যথেষ্ট ভালো, সামনের চাকায় ২৭৬ মিমি ডিস্ক ব্রেক এবং পিছনের চাকায় ২২০ মিমি ডিস্ক ব্রেক ইনস্টল করা হয়েছে। রিভিউ অনুযায়ী বাইকটির ব্রেক সিস্টেম যথেষ্ট ভালো তবে সিবিএস বা এবিএস থাকলে আরো ভালো হতে পারতো।

GPX Demon GR165R Review ডাইমেনশন এবং সিটিং পজিশন

এই বাইকে একটি ক্লিপ-অন হ্যান্ডেলবার ব্যবহার করা হয়েছে। এটির মোট দৈর্ঘ্য ২০২০ মিমিঃ, প্রস্থ ৭৪৭ মিমিঃ, উচ্চতা ১১৪৫ মিমিঃ এবং হুইলবেসের আকার ১৩৫০ মিমিঃ। এটির সিটের উচ্চতা ৮১৫ মিমিঃ এবং গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স ১৫৯ মিমিঃ। বাইকটির টোটাল কার্ব ওয়েট ১৫৫ কেজি। এটিতে ১২ ভোল্ট, ৬.৩ এম্পেয়ার এমএফ মেইনটেনেন্স ফ্রি ব্যাটারি রয়েছে। ফুয়েল ট্যাঙ্কের ধারণ ক্ষমতা ১১ লিটার। ব্যবহারকারীরা বাইকের বডি ডাইমেনশন এবং সিটিং পজিশন নিয়ে সন্তুষ্ট।

GPX Demon GR165R Review ইন্সট্রুমেন্ট প্যানেল

বাইকটির ইন্সট্রুমেন্ট প্যানেল যথেষ্ট আধুনিক। বাইকাররা ইন্সট্রুমেন্ট প্যানেল টেকনোলজিতে সন্তুষ্ট। এটিতে সফট টাচ সেটিং সিস্টেম সহ সম্পূর্ণ ডিজিটাল এলইডি মিটার এবং ব্ল্যাক স্ক্রিন প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। এই প্যানেলে সফট টাচস্ক্রিন প্রযুক্তি সংযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও ড্যাশবোর্ড ডিজিটাল সিস্টেমের, এখানে ওডোমিটার এবং স্পিডোমিটার, ফুয়েল লেভেল, স্পিড, ডিস্ট্যান্ট, টেম্পারেচার, ক্লক, ফুয়েল গেজ, আরপিএম কাউন্টার এবং গিয়ার পজিশন দেখা যায়। কিছু কিছু ফিচারস, সফট টাচ সেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে সহজেই নিজের মত করে মোডিফাই করে নিতে পারবেন।

জিপিএক্স ডেমন জি আর ১৬৫আর রিভিউ বাইকের চাকা

GPX Demon GR 165R বাইক ব্যবহারকারীরা চাকার পজিটিভ রিভিউ করেছেন। এটির সামনের চাকায় ১০০/৮০-১৭ (টিউবলেস) এবং পেছনের চাকায় ১৪০/৭০-১৭ (টিউবলেস) টায়ার সেকশন রয়েছে। টায়ার সেটআপ খুবই ভালো, টায়ারের নিচে অ্যালয় হুইল রয়েছে। টায়ার সেটআপ খুবই ভাল, স্কীড করে না, কর্নারিংয়ে স্মুথ সাপোর্ট দেয়।

GPX Demon GR165R Review বাইকের মাইলেজ

বাইকাররা বাইকটির মাইলেজ নিয়ে মোটামুটি সন্তুষ্ট। বাইক কোম্পানির তথ্য অনুযায়ী এটি ৪৫ কিঃমিঃ/লিঃ হাইওয়েতে এবং সিটি রোডে ৪০ কিঃমিঃ/লিঃ এভারেজ মাইলেজ দেবে। তবে রিভিউ অনুযায়ী বাইকাররা এভারেজ ৩০-৩৫ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পেয়েছেন।

GPX Demon GR165R Review বাইকের এলইডি লাইটিং

বাইকটিতে সম্পূর্ণ এলইডি সেটআপ ইনস্টল করা হয়েছে। হেডলাইট, সাইড ইন্ডিকেটর, টেল লাইট, ফ্রন্ট এবং রেয়ার ল্যাপস, ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, কনসোল প্যানেল সমস্ত কিছুতেই এলইডি লাইটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে।

জিপিএক্স ডেমন জি আর ১৬৫আর রিভিউ – ব্যবহারকারীদের মতামত

এখানে GPX Demon GR165R বাইক ব্যবহারকারীদের কিছু রিভিউ এবং মতামত আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হলো। (এগুলো বাইক ব্যবহারকারীদের নিজস্ব মতামত)

এনায়েত বলেছেন,

GPX Demon GR165R বাইকটির ডিজাইন এবং ফিচারস তাকে মুগ্ধ করেছে। বাইকটি এই দামের মধ্যে যা ফিচারস এবং সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে তাতে তিনি সন্তুষ্ট। তিনি ১০০০ কিঃমিঃ এর বেশি পথ বাইক চালিয়েছেন।

তার কাছে বাইকের যা ভালো লেগেছে – বাইকের গ্রাফিক্স, কালার কম্বিনেশন, হেডলাইট এবং টেললাইটের ডিজাইন তাঁর কাছে ইউনিক লেগেছে। ইঞ্জিনের শক্তি মনস্টার লেভেলের এবং এক্সেলেরেশনও দুর্দান্ত। তার কাছে ডাবল ডিস্ক ব্রেক অনেক ভালো মনে হয়েছে, কর্নারিং করার সময় অন্যান্য বাইকের থেকে ভালো ব্যালেন্স থাকে। তার কাছে সাসপেনশন অনেক স্মুথ লেগেছে। ভাঙা বা গর্ত রাস্তায় তিনি সাসপেনশন থেকে ভালো পারফরমেন্স পেয়েছেন।

কিছু খারাপ লাগাও শেয়ার করেছেন, যেগুলো আরও ভালো হতে পারতো – মাইলেজ আরো বেশি হলে ভালো হতো, তিনি ৩০-৩৫ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পেয়েছেন। যদিও জিপিএক্স এর দাবি অনুযায়ী এভারেজ ৪০ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পাওয়া যাবে। বাইকের ইন্ডিকেটর সুইচ হাতল থেকে কিছুটা দূরে, কব্জির কাছাকাছি থাকলে ভালো হতো।

আবদুল্লাহ আল মামুন বলেছেন,

বাইকটা প্রথম দর্শনেই তার খুব ভালো লেগেছিলো। বাইকটির ডিজাইন যে কারো ভালো লাগবে। বাইকটির ওভারঅল পারফরম্যান্সে তিনি সন্তুষ্ট।

তার কাছে বাইকের ভালো দিক – এই বাইকের ডিজাইন ও আউটলুক, দেশে থাকা অন্যান্য স্পোর্টস বাইকের থেকে তাঁর ভালো লেগেছে। বাইককের বিল্ড কোয়ালিটি ও ফিনিশিং তাঁর কাছে বেশ ভালো লেগেছে। এটির ব্রেকিং সিবিএস বা এবিএস না থাকলেও, ওভারঅল ব্রেকিং পারফরমেন্সে তিনি সন্তুষ্ট। সাসপেনশন সিস্টেম তাঁর কাছে খুবই উন্নতমানের লেগেছে।

তার কাছে বাইকের মন্দ দিক – তিনি শুধু বাইকের পেছনের যে গ্রাব রেল রয়েছে, তা নিয়ে কিছুটা অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। গ্রাব রেল আরও বড় এবং উন্নত করা উচিত ছিল বলে তিনি মনে করেন।

ইসকেন্দার কবির বলেছেন,

তার কাছে বাইকটির লুকিং, বডি স্ট্রাকচার, গ্রাফিক্স এবং ওভারঅল ডিজাইন অনেক ভালো লেগেছে। বাইকের ইঞ্জিন পারফরম্যান্স, মাইলেজ, ব্রেকিং সিস্টেম নিয়েও তিনি সন্তুষ্ট।

তার কাছে বাইকটির ভালো দিকগুলো হলো – এই বাইকের মাস্কুলার ডিজাইন ও আউট লুক অনেক প্রিমিয়াম। বিল্ড কোয়ালিটি অনেক উন্নত, তাই বাইকটা দেখলে চোখ ফেরানো কঠিন। তার কাছে এটি দেশের মধ্যে সেরা বিল্ড কোয়ালিটির বাইক। বিশেষ করে হেডলাইট এবং টেললাইট ডিজাইনে তিনি মুগ্ধ। দারুন পাওয়ারফুল ইঞ্জিন, মুহূর্তেই অনেক স্পীডে তোলা যায়। বাইক চালিয়ে অনেক কমফোর্ট ফিল করেছেন, সিটিং পজিশনেরও অনেক প্রশংসা করেছেন। ব্রেকিং এবং সাসপেনশন থেকেও তিনি ভালো পারফরম্যান্স পেয়েছেন।

তার কাছে বাইকটির মন্দ দিকগুলো হলো – বাইকটির সিটিং পজিশনের উচ্চতা তার কাছে কিছুটা বেশি মনে হয়েছে। পিলিয়ন সিট সামান্য বড় হলে ভালো হতো বলে তিনি মনে করেন।

 

ব্যবহারকারীদের GPX Demon GR165R Review অনুযায়ী এই বাইকের সুবিধা সমূহ –

         (১) এটি একটি দুর্দান্ত স্পোর্টস বাইক। এর ক্লিপ-অন হ্যান্ডেলবার, স্প্লিট সিট, ওভারঅল ডিজাইন একটি এগ্রেসিভ স্পোর্টি লুক দেয়।

         (২) বাইকের এক্সেলেরেশন খুব স্মুথ এবং যথেষ্ট পাওয়ারফুল ইঞ্জিন। এই পাওয়ারে বাইকটি ৪ সেকেন্ডে ৬০+ কিঃমিঃ গতি তুলতে পারে।

         (৩) সাসপেনশন অনেক মসৃন। এটিতে টেলিস্কোপিক শক অবসরবার ব্যবহার করা হয়েছে, যা বাইকটিকে যেকোনো রাস্তায় স্ট্যাবল রাখতে সাহায্য করে, এবং সাবলীল ভাবে বাইক কর্নারিং করা যায়।

         (৪) এটিতে বিখ্যাত ব্র্যান্ড ওয়াইএসএস’এর মনো-শক সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে, যা রাইডার এবং পিলিয়নের কমফোর্ট নিশ্চিত করে।

         (৫) বাইকটিতে বিখ্যাত ডেলফি ব্রান্ডের ইলেক্ট্রনিক ফুয়েল ইনজেকশন (EFI) ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে, এই প্রযুক্তি বাইকের স্ট্যান্ডার্ড মাইলেজ, ইঞ্জিন পারফরম্যান্স এবং স্থায়িত্ব বজায় রাখতে সাহায্য করে।

ব্যবহারকারীদের জিপিএক্স ডেমন জি আর ১৬৫আর রিভিউ অনুযায়ী এই বাইকের মন্দ দিক –

         (১) এবিএস বা সিবিএস সবচেয়ে কার্যকর এবং নিরাপদ ব্রেকিং সিস্টেম। এই বাইকে ডিস্ক ব্রেক বেশ ভালো হলেও, এবিএস বা সিবিএস সিস্টেম ব্যবহার করা হয়নি, হলে আরো কার্যকর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যেত।

         (২) বাইকটিতে ভালো মানের এলইডি লাইট ব্যবহার করা হলেও, আলো বেশি দূর স্প্রেড করে না। সামনে ভালো দেখা যায়, কিন্তু কিছুটা দূরে ভালো ভাবে বুঝা যায় না।

         (৩) বাইকের পিলিয়ন সিট খুব ছোট। দুই জন বসা যায়না বললেই চলে। স্পোর্টস বাইকের সিট এমনি হয়, কিন্তু আমাদের দেশের বাইকাররা লার্জ সিট প্রেফার করে।

         (৪) মাইলেজ আরো বেশি হলে ভালো হতো, বাইকাররা ৩০-৩৫ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পেয়েছেন। যদিও জিপিএক্স এর দাবি অনুযায়ী এভারেজ ৪০ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পাওয়া যাবে।

পরিশেষে, ওভারঅল GPX Demon GR165R বাইকটি দেখতে গর্জিয়াস এবং স্টাইলিশ। হেডলাইট থেকে টেইল ল্যাম্প পর্যন্ত বাইকটির সবকিছুতেই আদুনিকতার ছোঁয়া রয়েছে। অল্প কিছু ফিচারের অভাব থাকলেও বাইকটি একটি কমপ্যাক্ট বিস্ট স্পোর্টস বাইক। টোটাল ফিচার, বাইকের পারফরমেন্স, বাজার দর, মার্কেট ট্রেন্ড এসব বিবেচনায় বাইকটি সবার কাছে এট্রাক্টিভ। 

বাইক সম্পর্কিত যে কোনো তথ্যের জন্য ভিজিট করুন বাইকস গাইডে

GPX Demon GR165R is a gorgeous sports-category motorcycle. The majestic style of the bike with its beastly look will catch everyone’s attention. Its clip-on handlebar, split seat, and overall design give an aggressive sporty look. It is thoughtfully designed on the sporty racer bike theme. The eye-catching design of the bike will attract anyone. This bike is designed and marketed targeting the young generation and sports bike lovers. This blog discusses on the bike’s review, price, specifications, features, and more. Along with reviewing the reviews of the users, the advantages and disadvantages of the bike have been highlighted.

According to GPX Demon GR165R bike reviews, the design, dimensions, and engine performance of the bike are excellent. The engine of the bike is 164.6 cc with 16 Nm of torque producing 17.8 bhp of power. According to the company, it will give an average mileage of 40 km/l on highways and 35 km/l on city roads. According to reviews the average mileage of the bike is 35 km/l and the top speed is around 130-140 km/h. Although GPX claims the bike will give a top speed of 145 kmph. The instrument panel of the bike is quite modern. It uses a full digital LED meter and black screen panel with soft touch setting system. Overall it is an attractive sports bike.

Upside-down telescopic shocks are used in the front wheel of this bike, which helps to keep the bike stable and balanced on any hilly and rough roads. Due to this, the bike can be cornered easily. The rear wheel uses mono-shock suspension from the famous brand YSS, which keeps the bike smooth on any road. But the safest braking system CBS or ABS is not installed in this bike. The bottom of the bike is covered with a trellis frame.

GPX Demon GR165R Price in Bangladesh GPX Demon GR165R Price in Bangladesh

The official price of GPX Demon GR165R in Bangladesh is ৳3,19,999. However, you should check the final price of the bike with the dealer.

সুবিধা

  • স্টাইলিশ বাইক
  • ইউএসডি সাসপেনশন
  • ফুয়েল ইঞ্জেক্ট ইঞ্জিন

অসুবিধা

  • এবিএস নাই
  • বেশ ভারী একটি বাইক
  • পিলিয়ন সিট বেশ ছোট

GPX Demon GR165R নতুন বৈশিষ্ট

  • Gearbox with NBF2 technology
  • Excellent braking stability at both high and low-speed drills
  • Improved Controlling and handling

এক্সপার্ট অপিনিয়ন

8

Out of 10

ওভারঅল GPX Demon GR165R বাইকটি দেখতে গর্জিয়াস এবং স্টাইলিশ। হেডলাইট থেকে টেইল ল্যাম্প পর্যন্ত বাইকটির সবকিছুতেই আদুনিকতার ছোঁয়া রয়েছে। অল্প কিছু ফিচারের অভাব থাকলেও বাইকটি একটি কমপ্যাক্ট বিস্ট স্পোর্টস বাইক। টোটাল ফিচার, বাইকের পারফরমেন্স, বাজার দর, মার্কেট ট্রেন্ড এসব বিবেচনায় বাইকটি সবার কাছে এট্রাক্টিভ।

GPX Demon GR165R Video Review

GPX Demon GR165R-সম্পর্কে জিজ্ঞাসা

GPX Demon GR165R কেমন ধরণের বাইক?

GPX Demon GR165R একটি স্টাইলিশ স্পোর্টস বাইক

জিপিএক্স ডেমন জিআর১৬৫আর এর বেস্ট ফিচার কি কি?

GPX বাইক ইঞ্জিন পারফরম্যান্সের জন্য বিখ্যাত, এছাড়াও এই বাইকটির ১৬৪.৬ সিসির শক্তিশালী ইঞ্জিন, ইলেক্ট্রনিক ফুয়েল ইনজেকশন (EFI) ইঞ্জিন, নজরকাড়া ডিজাইন এর বেস্ট ফিচার।

GPX Demon GR165R বাইকের মাইলেজ কেমন?

বাইকাররা GPX Demon GR165R বাইকটির মাইলেজ নিয়ে মোটামুটি সন্তুষ্ট। বাইক কোম্পানির তথ্য অনুযায়ী এটি ৪৫ কিঃমিঃ/লিঃ হাইওয়েতে এবং সিটি রোডে ৪০ কিঃমিঃ/লিঃ এভারেজ মাইলেজ দেবে। তবে রিভিউ অনুযায়ী বাইকাররা এভারেজ ৩০-৩৫ কিঃমিঃ/লিঃ মাইলেজ পেয়েছেন।

GPX Demon GR165R বাইকের টপ স্পিড কত?

GPX Demon GR165R বাইকের সর্বোচ্চ গতি: ১৪০ কিঃমিঃ/আওয়ার (বাইকার রিভিউ অনুযায়ী ১৩০ কিঃমিঃ/আওয়ার)

GPX Demon GR165R এর অফিশিয়াল ডিস্ট্রিবিউটর কারা?

স্পিডোজ লিমিটেড GPX Demon GR165R বাইকের অফিশিয়াল ডিস্ট্রিবিউটর।

GPX Demon GR165R স্পেসিফিকেশন

বাইকের নাম

GPX Demon GR165R

বাইকের ধরন

Sports

ইঞ্জিন ক্ষমতা (সিসি)

164.6

ইঞ্জিন কুলিং

Liquid Cooled

সর্বোচ্চ শক্তি (হর্স পাওয়ার)

17.8 Bhp @ 9000 RPM

সর্বোচ্চ টর্ক

16 NM @ 6000 RPM

স্টার্ট

Electric

গিয়ারের সংখ্যা

6

মাইলেজ

35 Kmpl (Approx)

টপ স্পিড

140 Kmph (Approx)

সামনের সাসপেনশন

Upside down

পেছনের সাসপেনশন

YSS 7 levels adjustable, Mono Shock with Multi Link

সামনের ব্রেক টাইপ

Disc Brake

ফ্রন্ট ব্রেক ডায়ামিটার

276 mm

অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম (এবিএস)

No

পেছনের ব্রেক টাইপ

Disc Brake

পেছনের ব্রেক ডায়ামিটার

220 mm

ব্রেকিং সিস্টেম

Dual Disc

সামনের টায়ারের সাইজ

100/80-17

টায়ারের ধরন

Tubeless

পিছনের টায়ারের সাইজ

140/70-17

সামগ্রিক দৈর্ঘ্য

2020 mm

উচ্চতা

1145 mm

ওজন

155 kgs

হুইলবেস

1350 mm

সামগ্রিক প্রস্থ

747 mm

গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স

159 mm

জ্বালানী ট্যাঙ্কের ধারণ ক্ষমতা

11 Liters

আসন উচ্চতা

815 mm

হেড লাইট

LED

ইন্ডিকেটরস

LED

পেছনের লাইট

LED

স্পিডোমিটার

Digital

আরপিএম মিটার

Digital

আসনের ধরন

Split-Seat

ইঞ্জিন কিল সুইচ

Yes

ওডোমিটার

Digital

Buy New GPX Demon

No bikes found. Browse used section or Explore other models.

Buy Used GPX Demon
GPX Demon GR165 RR 2022 for Sale

GPX Demon GR165 RR 2022

8,000 km
MEMBER
Tk 335,000
4 weeks ago
GPX Demon . 2022 for Sale

GPX Demon . 2022

600 km
MEMBER
Tk 345,000
1 month ago
+ Post an ad on Bikroy