Lifan K19 165 রিভিউ -স্পেসিফিকেশন, ফিচার ও দাম

29 May, 2023
Lifan K19 165 রিভিউ -স্পেসিফিকেশন, ফিচার ও দাম

বাংলাদেশে চাইনিজ মোটরবাইক কোম্পানিগুলোর মধ্যে বেশ জনপ্রিয় নামগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে লিফান। স্ট্যান্ডার্ড ও মানসম্মত প্রোডাক্ট সাশ্রয়ী দামের মধ্যে গ্রাহকদের মাঝে পৌঁছে দেয়ার জন্য অনবরত কাজ করে যাচ্ছে এই কোম্পানিটি। এছাড়াও পারফরম্যান্সভিত্তিক শক্তিশালী ইঞ্জিনের জন্যও লিফানের নাম সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে। বিভিন্ন মোটরসাইকেল কোম্পানি এখন লিফানের ইঞ্জিন তাদের বাইকে ব্যবহার করছে। বাংলাদেশে লিফান মোটরসাইকেলের একমাত্র আমদানিকারক এবং অনুমোদিত ডিস্ট্রিবিউটর হচ্ছে রাসেল ইন্ডাস্টিজ। এই দেশে তাদের আমদানি করা প্রথম মোটরসাইকেল হচ্ছে লিফান কেপিআর ১৫০। সেই থেকে তাদের প্রোডাক্টের জনপ্রিয়তা এই দেশে ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।

সম্প্রতি তারা বাংলাদেশের মোটরসাইকেল মার্কেটপ্লেসে একটি নতুন লিফান মোটরসাইকেল লঞ্চ করেছে, যার নাম কে১৯। Lifan K19 হচ্ছে একটি দুর্দান্ত আউটলুক এবং আকর্ষণীয় ডিজাইনের ক্রুজার বাইক। বাংলাদেশে মানসম্মত ক্রুজার মোটরসাইকেলের মডেল বলতে গেলে হাতে গোনা অল্প কয়টা। আর তাই লিফান কে১৯ দামের সাপেক্ষে এর প্রতিদ্বন্দ্বীর সংখ্যাও বেশ কম; সুজুকি ইনট্রুডার, বাজাজ অ্যাভেঞ্জার স্ট্রিট ১৬০ এবং কিওয়ে কে-লাইট ইত্যাদি মোটরবাইককে কে১৯ বেশ ভালোই টক্কর দিচ্ছে। চলুন দেখে নেয়া যাক লিফান কে১৯ রিভিউ এবং এর বিভিন্ন আকর্ষণীয় ফিচারগুলোঃ

Lifan K19 রিভিউ – ডিজাইন ও আউটলুক

Lifan K19 বাইকটির ডিজাইনের ক্ষেত্রে লিফান বেশ ভালো দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে। মসৃণ ওয়াটার-ড্রপ ডিজাইনের জ্বালানি ট্যাংক এবং বাঁকা সাইড প্যানেলগুলো এই বাইকটির আউটলুক বেশ আবেদনময় করে তুলেছে। ইলেকট্রিক্যাল প্যানেলটি জ্বালানি ট্যাংকের উপর সামনের দিকে বসানো। আর সেই জন্য জ্বালানি ফিলার ক্যাপটি দেয়া হয়েছে ট্যাংকের ডান পাশে। পেছনের প্যানেল এবং সিটগুলো বাইকটির আউটলুকের সাথে সামঞ্জন্স্য রেখে ডিজাইন করা হয়েছে। কাস্ট অ্যালয় রীমের কারণে বাইকটির চাকাগুলোর আউটলুকও দুর্দান্ত।

লিফান কে১৯ ফিচারের মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এর হেডলাইট ইউনিট। ৩ পিস এলইডি লাইট উপরে ও নিচে দু’টি সেকশনে ভাগ করে বসানো। এই হেডলাইটটির ডিজাইন বেশ স্পোর্টি এবং আধুনিকতার ছোঁয়া রয়েছে। টেইল লাইটে ব্যবহার করা হয়েছে এলইডি ম্যাট্রিক্স লাইট ইউনিট। লিফান কে১৯ দামের সাপেক্ষে এর রঙের বিন্যাসও দারুণ আর সহজে নষ্ট হবে না।

লিফান কে১৯ রিভিউ– ইঞ্জিন পারফরম্যান্স

১৬৫ সিসি ডিসপ্লেসমেন্টের ৪ স্ট্রোক, ২ ভালভ, সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিনটি Lifan K19 স্কুটারের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য। ফুয়েল ইনজেকশন ও লিকুইড কুলিং সিস্টেমসহ এই ১৬৫ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন থেকে ৮০০০ আরপিএম-এ সর্বোচ্চ ১৭ বিএইচপি শক্তি এবং ৬৫০০ আরপিএম-এ সর্বোচ্চ ১৭ এনএম টর্ক পাওয়া যায়।

লিফান কে১৯ দামের সাপেক্ষে এই স্কুটারে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ স্পিডের ডুয়াল শিফট ফোর্ক মেকানিজম এবং ওয়েট মাল্টি-প্লেট ক্লাচ যা ইঞ্জিনকে মসৃণ গিয়ার শিফট ও এক্সিলারেশন দিতে সাহায্য করে। ব্যালেন্স শ্যাফট প্রযুক্তি থাকায় ইঞ্জিনের ভাইব্রেশন আর শব্দ একদম কমে গেছে।

Lifan K19 রিভিউ – মাইলেজ

লিফান কে১৯ ফিচার হিসেবে এই স্কুটারে জ্বালানি সাপ্লাই হিসেবে রয়েছে ইলেকট্রনিক ফুয়েল ইনজেকশন (এফআই) সিস্টেম, যা আপনাকে দিবে বেশ ভালো জ্বালানি দক্ষতা। ইঞ্জিনে জ্বালানির সুষম ব্যবহার নিশ্চিত করে এই এফআই সিস্টেম। গড়ে এই স্কুটারটি প্রতি লিটারে ৪০ কিমি পর্যন্ত মাইলেজ দিতে সক্ষম, ড্রাইভিং কন্ডিশনের উপর নির্ভর করে এই পরিমাণ কম-বেশি হতে পারে। লিফান কে১৯ রিভিউতে উল্লেখযোগ্য যে এই বাইকের জ্বালানি ট্যাংক ধারণক্ষমতা ১৪ লিটার। অতএব এই মোটরবাইকে লং ট্যুর দেয়াও বেশ সহজ হবে।

লিফান কে১৯ রিভিউ– ট্রান্সমিশন

Lifan K19 বাইকটিতে আপনারা পাচ্ছেন ৬ স্পিডের গিয়ারবক্স, যা ক্রুজার বাইকের জন্য আদর্শ। ওয়েট মাল্টিপ্লেট ক্লাচসহ এই বাইকটি থেকে কখনও কখনও ঘন্টায় ১১৫-১২৫ কিমি পর্যন্ত গতি তোলা সম্ভব। ক্রুজার বাইকের সাপেক্ষে ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি দুর্দান্ত হওয়ায় এই স্কুটারটি খুব সহজেই ১১০ কিমি প্রতি ঘন্টা গতি তুলতে সক্ষম।

লিফান কে১৯ রিভিউ– সাসপেনশন ও ব্রেক

লিফান কে১৯ ফিচার হিসেবে বাইকটির সামনে দেয়া হয়েছে টেলিস্কপিক হাইড্রোলিক সাসপেশন এবং পেছনের দিকে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাডজাস্টেবল ডুয়াল শক অ্যাবসর্বার। সামনের সাসপেনশনটি থেকে বেশিরভাগ টেলিস্কপিক সাসপেনশনের মতই ভালো পারফরম্যান্স আশা করা যাচ্ছে। পেছনের সাসপেনশনটি অ্যাডজাস্টেবল হওয়ায় এর পারফরম্যান্স আরো ভালো পাওয়া যাবে, কেননা এই ফাংশনটি বেশ দুর্লভ। যেহেতু বাইকটি ক্রুজার টাইপ, তাই স্বাভাবিকভাবেই কর্ণারিং করার সময় এটি খুব বেশি কাত করা সম্ভব না, তাই এই ব্যাপারে একটু সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

লিফান কে১৯ দামের বিচারে এতে রয়েছে একটি ডিস্ক-ড্রাম ব্রেক সেট-আপ। স্কুটারটির সামনের ব্রেকটি সিঙ্গেল ডিস্ক টাইপ এবং পেছনে রয়েছে ড্রাম ব্রেক। সামনের ব্রেকটির ব্যাস বেশ বড় হওয়ায় এর থেকে বেশ ভালো পারফরম্যান্স আশা করা যাচ্ছে। পেছনের ড্রাম ব্রেকটি সাদামাটা; তবে মাত্র ২০ হাজার টাকা বেশি দিয়ে যদি ডাবল ডিস্ক ভার্সন কেনা যায়, তাহলে সেরা পারফরম্যান্স নিশ্চিত করা সম্ভব। সাধারণ ব্রেকিং সিস্টেমের এই বাইকটিতে এবিএস দেয়া হয়নি, যা লিফান কে১৯ ফিচার হিসেবে একটু হতাশাজনক। তবে এই ব্রেকগুলো শহরের রাস্তায় কমিউট করার জন্য বেশ ভালো সাপোর্ট দিবে আশা করা যাচ্ছে।

Lifan K19 165 রিভিউ– বাইকের মাপ, সিটিং পজিশন ও টায়ারের সাইজ

লিফান কে১৯ দাম অনুযায়ী বাইকটির সাইজ মোটামুটি বড় আর লম্বা। মোটরসাইকেলটির সামগ্রিক দৈর্ঘ্য ২২৫০ মিমি, প্রস্থ ৯০৫ মিমি এবং উচ্চতা ১৩৩০ মিমি। নিরাপত্তার জন্য Lifan K19 বাইকের গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রাখা হয়েছে ১৫৫ মিমি, যা অন্যান্য বাইকের তুলনায় একটু কম। স্পিড ব্রেকার আর উঁচু-নিচু রাস্তায় একটু সতর্ক হয়ে চালানো বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

১৫০ কেজি ওজনের এই বাইকের সিট হাইট ৭১০ মিমি, যা অন্যান্য ক্রুজার বাইকের মতই নিচু। বাইকটির ভারি ওজন নিয়ে আপত্তি করার কোনও সুযোগ নেই, কেননা ক্রুজার বাইকের জন্য এই ওজন আদর্শ। হাইওয়েতে কে১৯ বাইকটি রাজত্ব করবে, আর তাই লং রাইড হবে ক্লাসি আর আরামদায়ক। বাইকটির হুইলবেইজ ১৫০৫ মিমি, বিশাল হুইলবেইজ থাকায় কর্ণারগুলোতে বাইকের ব্যালেন্স থাকবে ভালো। শহরের রাস্তায় ভারি ট্র্যাফিকের মধ্যে এই বাইকের চলাফেরা একটু মন্থর হবে, কেননা এটি প্রায় একটা গাড়ির সমান জায়গা নিয়ে চলে।

লিফান কে১৯ ফিচার হিসেবে স্কুটারটিতে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যালয় রীম সহ টিউবলেস টায়ার। বাইকটির টায়ারগুলো বেশ মোটা, যার সাইজ সামনে ১১০/৯০-১৬ ও পেছনে ১৩০/৯০-১৫। বড় ও মোটা হওয়ায় এই চাকাগুলোর গ্রিপ বেশ ভালো। তবে পেছনের চাকাটি আরো মোটা হলে আরও ভালো গ্রিপ পাওয়া যেত।

লিফান কে১৯ রিভিউ– ইলেকট্রিক্যাল প্যানেল এবং বিভিন্ন ফিচার

Lifan K19 165 ইলেকট্রিক্যাল সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে এর ১২ ভোল্টের এমএফ ব্যাটারি এবং এলইডি লাইট সেট-আপ; আর তাই যখনই রাইড করুন না কেন, রাস্তা দেখতে আর কোনো সমস্যাই হবে না। হেডলাইট, টেইল লাইট সব এলইডি টাইপের এবং ইনডিকেটরগুলো হ্যালোজেন।

ইন্সট্রুমেন্ট কনসোলটি বেশ সুন্দরভাবে জ্বালানি ট্যাংকের উপর বসানো। লিফান কে১৯ ফিচারের মধ্যে আপনারা ইঞ্জিন কিল সুইচসহ প্রয়োজনীয় সব ধরণের জিনিস পাবেন এই কনসোলে। বাইকটির সেমি-ডিজিটাল প্যানেলটিতে রয়েছে একটি এনালগ ট্যাকোমিটার, কিন্তু স্পিডোমিটার, ফুয়েল গেইজ এবং ট্রিপ মিটার এই সবকিছুই ডিজিটাল।

Lifan K19 রিভিউলিফান কে১৯ দাম ও কালার অপশন

Lifan K19 -এর ২টি কালার অপশন বাংলাদেশে দেখা যায়, তা হলো- ক্যামেলিয়া রেড, শিমার ব্ল্যাক। তবে রাসেল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এখন শুধুমাত্র ক্যামেলিয়া রেড বাইকটিই আমদানি করছে। দু’টো কালার অপশনেই আপনারা দেখতে পাবেন একই রকম ডিক্যাল। লোগো আর কিছু ব্র্যান্ডিং ছাড়া এই দুই কালার অপশনের মধ্যে তেমন কোনো তফাত নেই।

Lifan K19 Price in Bangladesh বাংলাদেশে Lifan K19 এর দাম

বাংলাদেশে Lifan K19 এর অফিসিয়াল দাম ৳265,000। আসল মূল্য কম বেশি হতে পারে যা আপনি ডিলার এর কাছ থেকে যাচাই করে নিতে পারেন।

Bikroy এর বিগত ৩ মাসের লিস্টিং থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ব্যবহৃত used Lifan Other Model 2023 এর দাম BDT 158,125.

Lifan K19 Pros সুবিধা

  • বড় সাইজ
  • শক্তিশালী ও মসৃণ ইঞ্জিন
  • স্টক স্যাডল কেস
  • স্টাইলিশ আউটলুক
  • মোটা টায়ার

Lifan K19 Cons অসুবিধা

  • গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স বেশ কম
  • পেছনের সাসপেনশন

এক্সপার্ট অপিনিয়ন

9.0

Out of 10

বাংলাদেশে দিন কে দিন ট্যুর দেয়া, বাইকারদের গ্রুপ ট্যুর ইত্যাদির প্রচলন অনেক বেড়ে গিয়েছে। সেই সাথে তাল মিলিয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ক্রুজার বাইক। ট্যুর বা ভ্রমন ছাড়াও বাইকগুলোর দারুণ ক্লাসি ডিজাইন আর সেরা ইঞ্জিন পারফরম্যান্সের জন্য নানা বয়সের ও পেশার মানুষ ক্রুজার বাইক বেছে নিচ্ছেন। আর এই সেগমেন্টে সাশ্রয়ী দামে দারুণ সুন্দর একটি অপশন Lifan K19 বাইকটি। সিঙ্গেল ডিস্ক, অথবা ডাবল ডিস্ক, যেটাই বেছে নিন না কেন, এই বাইকে চড়ে সারা দেশ ভ্রমণ করার অনুভব হবে অতুলনীয়। বিভিন্ন সেগমেন্টে বাংলাদেশে লিফান মোটরবাইকের দাম জানতে হলে চোখ রাখুন দেশের সেরা মোটরবাইক মার্কেটপ্লেস Bikroy-এ।

Rasel Industries Limited has added an all-new luxurious cruiser Lifan K19 in their 2021 product line. The cruiser is packed with some striking features, gorgeous outlook & design. Undoubtedly it is designed to stand alone and appear unique in the crowd.

At first glance, Lifan K19 looks like a big guy with a muscular and bold body profile. The most attractive parts of this bike are the headlamp, fuel tank, and seat including the tail. All the corners equally deserve attention.

Coming to the front, the headlamp is a double-layered LED setup that also includes LED DRLs. The top of the head is completely naked, there are no instruments occupied. Rather the cluster is mounted on the fuel tank. The one-piece pipe handlebar is wide, mounted sporty up-right, and featured with variable diameter. It can give the rider the feeling of being free, ensuring superb handling comfort.

The fuel tank is big with a water-drop design. Holding the ODO at its top, it crafted the fuel cap to the right side. Under the tank, both sides are crafted with heavy panel ribs that cover the cooling radiator and finish at the side panels. The seat is segmented, heavily cushioned, and wide. It ensures comfortable cruising. Further, the tail end is open where the Matrix LED tail-lamp is positioned under the wider rear panel. Hence, the K19 is elegant & modern yet flexible to ride freely.

The Lifan K19 is designed on a steel frame including all cast-aluminum wheels. The rims are alloy rims featuring paired 10-spoke in each. 110-90/16 & 130-90/15 tires are featured respectively in the front and at the rear. Both tires are tubeless.

In the braking setup, the front wheel featured a hydraulic disc brake. The disk is highly ventilated and is mounted to the left. Meanwhile, the rear setup is drum-type. Not to mention it may be a bit frustrating. But obviously, it’s a deliberate feature considering the safety issues in Asian road conditions.

There is a hydraulic telescopic fork setup in the front; the suspension is well-calibrated to deal better with Asian road conditions. In the rear spring-loaded twin shock absorbers are used and these are adjustable. Due to the caster, the front suspension should feel better responsive. And the adjustable rear setup should do their jobs as well. Along with comfy seating and a wider pipe bar, the riding should be more fun and feel like a hawk.

The braking setup seems good enough but 150kg weight is quite a demerit. But overall lower saddle height and a convenient amount of ground clearance should tackle all the scams. Further, the 14-liter fuel capacity and all LED lighting setup no doubt can cut a few more points from the cons.

 

Lifan K19 is presented with a 165cc engine in Bangladesh. The motorcycle is copying the same engine that was profiled in the Lifan KPR165-FI model. It’s a vertical-aligned single-cylinder, four-stroke, liquid-cooled engine. The newly designed cooling radiator is wider and placed in an aligning middle to ensure maximum cooling.

This SOHC 2-valve engine features the Electronic Fuel Injection System that Lifan calls LGC-FI. It features an electric starting system, and the transmission is handled with an extensive 6-speed gearbox. This NBF Generation-2 engine is refined with a new design of balance-shaft, dual-swirl combustion chamber, and dual-shift-fork gear mechanism.

Furthermore, the ceramic-coated piston top, roller camshaft rocker arm, and lightweight valve-train are featured to ensure smoother engine operation and optimum fuel economy. Hence this refined engine can produce a maximum power of 17 BHP and torque of 17 NM. In addition, the official promotion describes it can ensure 100km/liter <2.0 of fuel economy and a maximum speed of 110 kmph.

 

Lifan K19 Price in Bangladesh Lifan K19 Price in Bangladesh

The official price of Lifan K19 in Bangladesh is ৳265,000. However, you should check the final price of the bike with the dealer.

As per the Bikroy's 3 months price data, the avg. price of used Lifan Other Model 2023 is BDT 158,125.

Video Review


29 May, 2023 - আকর্ষণীয় স্পোর্টি ডিজাইনের হালকা ও চটপটে স্কুটার Lifan K19 165. জেনে নিন লিফান কে১৯ দাম ও এর নানা রকম ফিচার।

Lifan K19 165 -সম্পর্কে জিজ্ঞাসা

Lifan K19 কাদের জন্য?

বাইকটি যারা বাজেটের মধ্যে ক্রুজার বাইক পছন্দ করেন, তাদের জন্য পারফেক্ট।

Which colors are available of Lifan K19 165 ?

Lifan K19 165  Wine Red , Black, White ৩টি রঙে পাওয়া যায়।

Lifan K19 এর মাইলেজ কত?

Lifan K19 এর মাইলেজ প্রায় ৪০ কিমিঃ পার লিটার।

Lifan K19 বাইকে কি ধরনের ইঞ্জিন স্টার্ট আছে?

Lifan K19  বাইকে শুধু ইলেকট্রিক  অপশন আছে।

Lifan K19 Specifications

Model name Lifan K19
Type of bikeCruiser
Type of engine4-stroke
Engine power (cc) 165.0cc
Engine coolingLiquid Cooled
Max. Horse power17 Bhp @ 8000 RPM
Max torque17 NM @ 6500 RPM
Start methodElectric
Number of gears6
Mileage 40 Kmpl (Approx)
Top speed110 Kmph (Approx)
Front suspensionTelescopic
Rear suspensionTwin Shock
Front brake typeSingle Disc
Front brake diameterNo Info
Rear brake typeDrum Brake
Rear brake diameterNo Info
Braking systemNormal Braking System
Front tire size110/90-16
Rear tire size130/90-15
Tire typeTubeless
Overall length2250 mm
Overall height1330 mm
Overall weight150 Kg
Wheelbase1505 mm
Overall width905 mm
Ground clearance155 mm
Fuel tank capacity14 Liters
Seat heightNo Info
Head lightLED
IndicatorsHalogen
Tail lightLED
Speedometerdigital
RPM meterDigital
OdometerDigital
Seat typesplitseat
Engine kill switchyes
Body colorsWine Red
Distributor/dealerRasel Industries Ltd
Features,
Buy Lifan K19 165bikroy
Lifan ১ 2000 for Sale

Lifan ১ 2000

400,000 km
MEMBER
Tk 12,000
5 days ago
Lifan 2017 for Sale

Lifan 2017

30,000 km
MEMBER
Tk 40,000
1 week ago
Lifan 2020 for Sale

Lifan 2020

17 km
MEMBER
Tk 42,000
3 weeks ago
Lifan 2017 for Sale

Lifan 2017

40,000 km
MEMBER
Tk 48,500
3 weeks ago
Buy Other Bikesbikroy
Runner Cheeta 2022 for Sale

Runner Cheeta 2022

25,000 km
MEMBER
Tk 60,000
8 minutes ago
Honda CD 2024 for Sale

Honda CD 2024

20,000 km
MEMBER
Tk 45,000
38 minutes ago
Bajaj Platina গুড কন্ডিশন 2012 for Sale

Bajaj Platina গুড কন্ডিশন 2012

2,000 km
verified MEMBER
Tk 35,000
57 minutes ago
TVS Apache RTR 2019 for Sale

TVS Apache RTR 2019

40,000 km
MEMBER
Tk 145,000
58 minutes ago
Bajaj Pulsar 150 SD 100% SUPER FRESH 2023 for Sale

Bajaj Pulsar 150 SD 100% SUPER FRESH 2023

7,965 km
verified MEMBER
verified
Tk 159,000
3 weeks ago
+ Post an ad on Bikroy