Kawasaki Ninja ZX10-R রিভিউ, দাম, ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

14 Dec, 2023
Kawasaki Ninja ZX10-R রিভিউ, দাম, ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

Kawasaki Ninja ZX-10R হলো কাওয়াসাকি ব্র্যান্ডের নিনজা স্পোর্ট বাইক সিরিজের একটি জনপ্রিয় সুপার স্পোর্টস টাইপ মোটরসাইকেল। ১০০০ সিসির ইন-লাইন ফোর ইঞ্জিন, হাই-স্পেক ব্রেমবো ব্রেকিং সিস্টেম, ইন্টিগ্রেটেড রাইডিং মোড এবং আপডেটেড ইঞ্জিন ম্যানেজমেন্ট টেকনোলজির সমন্বয়ে বাইকটি বাজারে আনা হয়েছে। বাইকটি শক্তিশালী ইঞ্জিন, উন্নত প্রযুক্তি এবং অ্যাগ্রেসিভ অ্যারোডাইনামিক ডিজাইনের জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এই ব্লগে Kawasaki Ninja ZX10-R রিভিউ, স্পেক্স, ফিচার, ভালো-মন্দ দিক সহ আরো বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এটি সাইকেল ওয়ার্ল্ড ম্যাগাজিন এবং ইন্টারন্যাশনাল মাস্টারবাইক প্রতিযোগিতা থেকে সেরা সুপারবাইক মর্যাদা পেয়েছে।

কাওয়াসাকি একটি বিখ্যাত জাপানি মোটরসাইকেল উৎপাদনকারী কোম্পানি। এই ব্র্যান্ডের বাইক সারাবিশ্বে জনপ্রিয়, এর শক্তিশালী ইঞ্জিন, স্টাইলিশ লুক, এবং হাই-স্পিডের কারণে। এই ব্র্যান্ডের বাইকগুলো রেগুলার মোটো জিপি প্রতিযোগিতায় দেখা যায়। কাওয়াসাকি নিনজা জেডএক্স১০-আর, বাইকটির অ্যাগ্রেসিভ মাস্কুলার সেপ, ইন্টেন্স-স্পিড, এবং ইলেকট্রনিক রাইডার এইড আপনাকে মুগ্ধ করবে। বাইকটি প্রায় দুই দশক আগে বাজারে আনা হয়েছিল, পর্যায়ক্রমে বেশকিছু আপডেটেড ফিচার সংযুক্ত করা হয়েছে।

Kawasaki Ninja ZX10-R রিভিউ

এটি একটি হাই-পারফর্মিং সুপার স্পোর্টস টাইপ বাইক এটিতে ১০০০ সিসির পাওয়ারফুল ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। ইঞ্জিনটি ইন-লাইন ফোর সিলিন্ডার এবং ডুয়েল ওভারহেড ক্যামস্যাফট ফিচার বিশিষ্ট। বাইকটি থেকে আপনি প্রায় ১১ কিমি/লিটার এভারেজ মাইলেজ এবং প্রায় ২৯০ কিমি/আওয়ার টপ স্পিড পেতে পারেন। ইঞ্জিনে কাওয়াসাকির লেটেস্ট ইলেকট্রনিক থ্রটল ভালভ (ETV) ব্যবহার করা হয়েছে, যা হাই-স্পেক ইঞ্জিন কন্ট্রোল ইউনিট (ECU) দ্বারা কন্ট্রোল করা হয়।

বাইকটির স্পেশাল বৈশিষ্টগুলো হলো – কাওয়াসাকি ইন্টেলিজেন্ট এন্টিলক ব্রেক সিস্টেম, ইলেকট্রনিক স্টিয়ারিং ড্যাম্পার, ইলেকট্রনিক ক্রুইজ কন্ট্রোল, ফুল এবং লো পাওয়ার মোড, ইকোনোমিক্যাল রাইডিং ইনডিকেটর, মোবাইল কানেক্টিভিটি, এলইডি ড্যাশবোর্ড ইত্যাদি। এছাড়াও বাইকটিতে আপনি কাওয়াসাকির নিজস্ব ইলেকট্রিক ফিচার পাবেন, যেমন, কাওয়াসাকি লঞ্চ কন্ট্রোল মোড (KLCM), স্পোর্ট-কাওয়াসাকি ট্রাক্শন কন্ট্রোল (S-KTRC), কাওয়াসাকি ইঞ্জিন ব্রেক কন্ট্রোল, কাওয়াসাকি কুইকশিফটার (KQS), এবং কাওয়াসাকি কর্ণার ম্যানেজমেন্ট ফাঙ্কশন (KCMF) ইত্যাদি। বাইকটির অ্যাডজাস্টেবল সাসপেনশন সিস্টেম এবং হুইল-টায়ারের মান প্রিমিয়াম কোয়ালিটির। বাইকটির সামনের দিকে ৪.৩-ইঞ্চি রঙিন TFT ডিসপ্লে রয়েছে, যেখানে ট্র্যাক রাইডিংয়ের জন্য সার্কিট মোড এবং কাওয়াসাকির রাইডোলজি অ্যাপের মাধ্যমে ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি সিস্টেম রয়েছে। এটি শুধু মাত্র ইলেকট্রিক মেথডে স্টার্ট করা যায়।

ফিচার এবং ডিজাইন

বাইকটির অ্যাগ্রেসিভ ডিজাইন এবং মাস্কুলার ফুল-ফেয়ারিং বডিওয়ার্ক যে কারো নজর কাড়বে। এটির বিল্ড কোয়ালিটি খুবই মজবুত এবং সিটিং-পজিশন সহ টোটাল এরগোনোমিক্স খুবই কম্ফোর্টেবল। ওভারঅল বডি স্ট্রাকচার এবং গ্লসি বডি কিটসের কম্বিনেশন, বাইকটিকে একটি গর্জিয়াস লুক এনে দিয়েছে। এটির এলিগেন্ট ডিজাইনের আই-শেপ টুইন এলইডি হেডল্যাম্প এবং TFT ডিসপ্লে প্যানেল যেকাউকে মুগ্ধ করবে।

বাইকটির স্পোর্টি ডিক্যালস, আপ-রাইজড স্প্লিট-সিটিং পজিশন, থ্রি-পার্টস হ্যান্ডেল বার এবং শার্প উইন্ডশীল্ড এটিকে দুর্দান্ত স্পোর্টি লুক এনে দিয়েছে। এটির এক্সজস্ট পাইপ, ইঞ্জিন গার্ড, টেইল ল্যাম্প, এবং ইলেকট্রিক্যাল প্যানেল এটিকে একটি ক্লাসি ভাইব দিয়েছে। বাইকটিতে স্পোর্ট, রোড, রেইন এবং রাইডার সহ চারটি ইন্টিগ্রেটেড রাইডিং মোড রয়েছে। কাওয়াসাকি ট্র্যাকশন কন্ট্রোলের (KTRC) মাধ্যমে আপনার প্রয়োজনীয় অপশনটি অপ্টিমাইজ করে সেটিংস সেট করে নিতে পারবেন। আপ এবং ডাউন কুইকশিফটার আপনার রাইডিং আরো কম্ফোর্টেবল করবে। এটিতে টুইন স্পার, কাস্ট অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেমের চেসিস ব্যবহার করা হয়েছে।

ইঞ্জিন পারফরম্যান্স

কাওয়াসাকি নিনজা জেডএক্স১০-আর বাইকটিতে ৯৯৮.০ সিসি ডিসপ্লেসমেন্ট ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। এই ইঞ্জিন লিকুইড-কুল্ড, ১৬-ভালভ, এবং ইনলাইন ৪-সিলিন্ডার ফিচার বিশিষ্ট। এছাড়াও ইঞ্জিনটি ফুয়েল ইনজেক্টেড এবং ডুয়েল ওভারহেড ক্যামস্যাফট ফিচার বিশিষ্ট। এই ইঞ্জিন ১৩২০০ আরপিএমে ২০০.২০ বিএইচপি সর্বোচ্চ পাওয়ার এবং ১১৪০০ আরপিএমে ১১৪.৯০ এনএম সর্বোচ্চ টর্ক জেনারেট করতে পারে। পাওয়ার এবং টর্ক জেনারেশন খুবই ভালো মানের হওয়ায় আপনি দুর্দান্ত স্পিডের পাশাপাশি খুবই স্মুথ অ্যাক্সিলারেশন পাবেন।

বাইকটিতে ইলেকট্রনিক ক্রুইজ কন্ট্রোল এবং থ্রটল ভালভ ইনস্টল করা হয়েছে। এছাড়াও কাওসাকি ব্র্যান্ডের নিজস্ব টেকনোলজির কুইক শিফটার, ট্রাক্শন কন্ট্রোল এবং বিভিন্ন পাওয়ার মোডস ইঞ্জিনের টপ-ক্লাস পারফরম্যান্স নিশ্চিত করে।

ইঞ্জিনের ট্রান্সমিশন সিস্টেম ম্যানুয়াল, এখানে ৬-স্পিড গিয়ারবক্স আপ-ডাউন কুইকশিফটার সহ ওয়েট মাল্টি ডিস্ক ক্লাচ সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে। ইঞ্জিনের বোর এবং স্ট্রোক যথাক্রমে ৭৬ মিমি এবং ৫৫ মিমি। এটির কম্প্রেশন রেশিও ১৩.০:১। বাইকটিতে সিলড চেইন ড্রাইভ এবং TCBI ডিজিটাল অ্যাডভান্স ইগনিশন সিস্টেম ইনস্টল করা হয়েছে।

বডি ডাইমেনশন

বাইকটির বডি স্ট্রাকচার বেশ বড় এবং মজবুত। এটির ওভারঅল দৈর্ঘ্য, প্রস্থ এবং উচ্চতা যথাক্রমে ২০৮৫ মিমি, ৭৫০ মিমি এবং ১১৮৫ মিমি। বাইকের সিটিং পজিশনের উচ্চতা ৮৩৫ মিমি। বাইকটির হুইলবেস ১৪৫০০ মিমি, যা কর্ণারিং এবং টপ স্পিডে ভালো ভাবে বাইক ব্যালেন্স করতে সাহায্য করে। এটির গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স বেশ কম, মাত্র ১৩৫ মিমি, তাই স্পিড ব্রেকার অতিক্রম করার সময় সতর্ক থাকতে হবে। এটি বেশ ভারী বাইক, ওজন ২০৭ কেজি। এটির ফুয়েল ট্যাংক ক্যাপাসিটি ১৭ লিটার। এটির স্প্লিট সিটিং পজিশন, এবং সিট কভার খুবই স্টাইলিশ, এখানে পিলিয়ন সিট রয়েছে তবে গ্র্যাবরেল নেই। বাইকটিতে টুইন স্পার কাস্ট অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেমের চেসিস ব্যবহার করা হয়েছে।

ব্রেক এবং সাসপেনশন

বাইকটিতে খুব ভালো মানের ব্রেক এবং সাসপেনশন সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে। এটির সামনের দিকে স্প্রিং অ্যাডজাস্টেবল প্রিলোড ৪৩ মিমি-এর ইনভার্টেড (BFF) ফর্ক সাথে এক্সটার্নাল কম্প্রেশন চেম্বার এবং রিবাউন্ড ড্যাম্পিং সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে। এটির পিছনের দিকে স্প্রিং অ্যাডজাস্টেবল প্রিলোড, হরাইজন্টাল ব্যাক-লিংক, গ্যাস চার্জড শক টাইপ সাসপেনশন ইনস্টল করা হয়েছে। শকটিতে প্রিলোড, কম্প্রেশন এবং রিবাউন্ড ড্যাম্পিং অ্যাডজাস্টমেন্ট রয়েছে। এই সাসপেনশন সিস্টেম রাস্তার যেকোনো ধাক্কা স্মুথলি অ্যাবজর্ব করতে পারে।

বাইকটিতে ডুয়েল চ্যানেল এন্টিলক ব্রেকিং সিস্টেম (ABS) ইনস্টল করা হয়েছে। এটি কাওয়াসাকি ইন্টেলিজেন্ট এন্টিলক টেকনোলজি বিশিষ্ট। এটিতে কাওয়াসাকি ইঞ্জিন ব্রেক কন্ট্রোল সিস্টেমও ইনস্টল করা হয়েছে। সামনের চাকায় ৪-পিস্টন রেডিয়াল-মাউন্ট মনোব্লক ফ্রন্ট ক্যালিপারের ৩৩০ মিমি-এর সেমি-ফ্লোটিং ডিস্ক ব্রেক এবং পিছনের চাকায় ১-পিস্টন রিয়ার ক্যালিপার ২২০ মিমি-এর ডিস্ক ব্রেক বসানো হয়েছে। এই ব্রেকিং সিস্টেম ইমার্জেন্সি ব্রেকিং এবং স্টপিং-এ খুবই নিরাপদ এবং কার্যকর।

হুইল এবং টায়ার

এরকম স্পিডি, পাওয়ারফুল এবং ভারী বাইকে উন্নতমানের হুইল এবং টায়ার ব্যবহার করা হয়। বাইকটির হুইলটি কাস্ট-অ্যালুমিনিয়ামের অ্যালয় টাইপ এবং টায়ার টিউবলেস ধরণের। সামনের চাকায় ১২০/৭০-জেডআর ১৭ সেকশন টায়ার এবং পিছনের চাকায় ১৯০/৫৫-জেডআর১৭ সেকশন টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে। উভয় হুইলের রিম সাইজ ১৭” ইঞ্চি। পিছনের চাকাটি যেকোনো ইমার্জেন্সি পরিস্থিতিতে খুব ভালো সাপোর্ট দিতে পারে।

মাইলেজ এবং স্পিড

ইন্টেন্স-স্পিড এবং পাওয়ারফুল ইঞ্জিন বাইকটির অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট। সুপার স্পোর্টস টাইপ বাইক হওয়ায় এসব বাইকের স্পিড দুর্দান্ত হলেও, মাইলেজ খুব বেশি হয় না। বাইকটি থেকে আপনি প্রায় ১১ কিমি/লিটার এভারেজ মাইলেজ এবং প্রায় ২৯০ কিমি/আওয়ার টপ-স্পিড পেতে পারেন।

কনসোল প্যানেল এবং ইলেকট্রিক্যাল ফিচার

বাইকটির ইন্সট্রুমেন্ট প্যানেল সম্পূর্ণ ডিজিটাল। কনসোল প্যানেলে স্পিডোমিটার, ওডোমিটার, আরপিএম মিটার সহ প্রয়োজনীয় বেশ কিছু ইনডিকেটর দেখতে পাবেন। সেটিংস অ্যাক্সেস করার জন্য রাইডার ইন্টারফেসের কনসোল প্যানেলে ৪.৩-ইঞ্চি রঙিন TFT ডিসপ্লে রয়েছে, যাতে ট্র্যাক রাইডিং-এর জন্য সার্কিট মোড, ট্যাকোমিটার, ফুয়েল ইনডিকেটর সহ আরো বেশ কিছু ফিচার দেখতে পাবেন।

এটির সকল লাইটিং সিস্টেম এলইডি টাইপ। হেডলাইটটি টুইন এলইডি টাইপ, স্লিম এলইডি টার্ন সিগন্যাল পিছনের লাইসেন্স-প্লেট ব্রাকেটে মাউন্ট করা হয়েছে। এখানে কাওয়াসাকির নিজস্ব রাইডোলজি অ্যাপের মাধ্যমে ব্লুটুথ সংযোগ করে মোবাইল ফোন নোটিফিকেশন একটিভ করতে পারবেন। এটিতে ইঞ্জিন কিল সুইচও রয়েছে। ওভারঅল Kawasaki Ninja ZX10-R রিভিউ অনুযায়ী কনসোল প্যানেল এবং ইলেকট্রিক্যাল ফিচার খুবই উন্নত মানের।

Bikroy এর বিগত ৩ মাসের লিস্টিং থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ব্যবহৃত used Kawasaki Other Model 2023 এর দাম BDT 14,999.

Kawasaki Ninja ZX10-R Pros সুবিধা

  • ১০০০ সিসি পাওয়ারের ইনলাইন-ফোর-সিলিন্ডার ইঞ্জিন
  • কাওয়াসাকি ইন্টেলিজেন্ট এন্টিলক ব্রেক সিস্টেম
  • কাওয়াসাকি ইঞ্জিন ব্রেক কন্ট্রোল এবং কুইকশিফটার
  • ইকোনোমিক্যাল রাইডিং ইনডিকেটর
  • ইলেকট্রনিক ক্রুইজ কন্ট্রোল
  • স্পোর্ট-কাওয়াসাকি ট্রাক্শন কন্ট্রোল (S-KTRC)
  • মোবাইল কানেক্টিভিটি

Kawasaki Ninja ZX10-R Cons অসুবিধা

  • উন্নত কিন্তু রেস্ট্রিক্টেড ইঞ্জিন ফিচার
  • কুইকশিফটার ডাউন শিফট অ্যাকশনের জন্য কিছু সূক্ষ্ম টিউনিং প্রয়োজন
  • ট্রান্সমিশন একটু রুক্ষ

এক্সপার্ট অপিনিয়ন

8

Out of 10

Kawasaki Ninja ZX10-R বাইকটি জাপানি মোটরসাইকেল ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি কাওয়াসাকি-এর একটি হাই পারফর্মিং সুপার স্পোর্টস টাইপ বাইক। এটি এলিগেন্ট অ্যাগ্রেসিভ স্টাইলিং, ইন্ট্যান্স স্পিড এবং অ্যাডভান্স টেকনোলজির জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। রেস্পন্সিভ চ্যাসিস, এডভান্স সাসপেনশন সিস্টেম, ইলেকট্রনিক অ্যাসিস্ট্যান্স, রাইডার কন্ট্রোল অ্যাডভান্টেজ এবং কাওয়াসাকির নিজস্ব ইলেকট্রিক ফিচারে এটি অনন্য একটি বাইক। যারা রেসিং বাইক পছন্দ করেন, রেগুলার হাইওয়ে এবং ট্র্যাক রোডে রাইডিং করেন, এই বাইকটি তাদের জন্য দুর্দান্ত অপশন।

বাইক সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য জানার জন্য ভিজিট করুন বাইকস গাইড। এখানে আপনি বিভিন্ন বাইকের রিভিউ, স্পেসিফিকেশন, এবং আরো বিভিন্ন তথ্য পাবেন। বর্তমানে নতুন বা ব্যবহৃত Kawasaki মোটরবাইকের  দাম জানতে হলে চোখ রাখুন দেশের সেরা মোটরবাইক মার্কেটপ্লেস Bikroy-এ।

Kawasaki Ninja ZX-10R is a popular super sports type motorcycle of the Kawasaki brand Ninja sport bike series. The bike has been launched with a 1000cc in-line four engine, high-spec Brembo braking system, integrated riding mode, and updated engine management technology. The bike has gained immense popularity for its powerful engine, advanced technology, and aggressive aerodynamic design. It received Best Superbike status from Cycle World Magazine and the International Masterbike Competition.

Feature

It is a high-performing super sports-type bike. 1000 cc powerful engine is used in it. The engine features an in-line four-cylinder and dual overhead camshafts. You can get an average mileage of around 11 km/liter and a top speed of around 290 km/hr from the bike.

The special features of the bike are – the Kawasaki Intelligent Antilock Brake System, Electronic Steering Damper, Electronic Cruise Control, Full and Low Power Mode, Economical Riding Indicator, Mobile Connectivity, LED Dashboard, etc. The bike also gets Kawasaki’s own electric features, such as Kawasaki Launch Control Mode (KLCM), Sport-Kawasaki Traction Control (S-KTRC), Kawasaki Engine Brake Control, Kawasaki Quickshifter (KQS), Kawasaki Corner Management Function (KCMF) etc. The adjustable suspension system and wheel tyres of the bike are of premium quality. The bike has a 4.3-inch colour TFT display on the front, with circuit mode for track riding and Bluetooth connectivity through Kawasaki’s Radiology app. It can be started only by the electric method.

Design

The bike’s aggressive design and muscular full-fairing bodywork will catch anyone’s eye. Its build quality is very solid and total ergonomics with seating-position is very comfortable. Combining overall body structure and glossy body kits gives the bike a gorgeous look. Its elegant design, eye-shape twin LED headlamps, and TFT display panel will impress anyone.

The bike’s sporty decals, up-raised split-sitting position, three-part handlebar, and sharp windshield give it a great sporty look. Its exhaust pipe, engine guard, tail lamps, and electrical panel give it a classy vibe. With Kawasaki Traction Control (KTRC) you can set the settings to optimize the option you need. An up-and-down quick-shifter will make your riding more comfortable.

Conclusion

The bike’s aggressive muscular feel, intense speed, and electronic rider aids will impress you. This bike is an excellent option for those who love racing bikes, regular highway, and track road riding.

As per the Bikroy's 3 months price data, the avg. price of used Kawasaki Other Model 2023 is BDT 14,999.

Kawasaki Ninja ZX10-R Video Review


15 Dec, 2023 - Kawasaki Ninja ZX-10R, একটি হাই-পারফর্মিং সুপার স্পোর্টস টাইপ বাইক। এটি ইন্টেন্স স্পিড, উন্নত প্রযুক্তি এবং অ্যাগ্রেসিভ ডিজাইনের জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

Kawasaki Ninja ZX10-R বাইক সম্পর্কে কিছু জিজ্ঞাসা –

Kawasaki Ninja ZX10-R কি ধরণের বাইক?

এটি একটি হাই-পারফর্মিং সুপার স্পোর্টস টাইপ বাইক।

বাইকটিতে কি ধরণের ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে?

লিকুইড-কুল্ড, ১৬-ভালভ, ইনলাইন ৪-সিলিন্ডার, ফুয়েল ইনজেক্টেড এবং ডুয়েল ওভারহেড ক্যামস্যাফট ফিচার বিশিষ্ট ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে।

বাইকটির স্টার্টিং মেথড কি?

ইলেকট্রিক মেথড।

বাইকটির ব্রেকিং সিস্টেমে কি ব্যবহার করা হয়েছে?

কাওয়াসাকি ইন্টেলিজেন্ট এন্টিলক ব্রেকিং সিস্টেম।

বাইকটির এভারেজ মাইলেজ এবং স্পিড কত?

প্রায় ১১ কিমি/লিটার এভারেজ মাইলেজ এবং প্রায় ২৯০ কিমি/আওয়ার টপ স্পিড।

Kawasaki Ninja ZX10-R Specifications

Model name Kawasaki Ninja ZX10-R
Type of bikeSports
Type of engine4-stroke In-Line Four
Engine power (cc) 999.9cc
Engine coolingLiquid Cooled
Max. Horse power200.20 Bhp @ 13200 RPM
Max torque114.90 NM @ 11400 RPM
Start methodElectric
Number of gears6
Mileage 11 Kmpl, (Approx)
Top speed290 Kmph, (Approx)
Front suspensionø43 mm inverted fork (BFF) with external compression chamber, compression and rebound damping and sp
Rear suspensionHorizontal Back-link, BFRC lite gas-charged shock with piggyback reservoir, compression and rebound
Front brake typeDisc Brake
Front brake diameter330 mm
Rear brake typeDisc Brake
Rear brake diameter220 mm
Braking systemN/A
Front tire size120/70ZR17
Rear tire size190/55ZR17
Tire typetubeless
Overall length2085 mm
Overall height1185 mm
Overall weight207 kg
Wheelbase1450 mm
Overall width750 mm
Ground clearance135 mm
Fuel tank capacity17 L
Seat height835 Mm
Head lightn/a
Indicatorsled
Tail lightled
SpeedometerDigital
RPM meterDigital
Odometerdigital
Seat typesplitseat
Engine kill switchyes
Body colorsN/A
Distributor/dealerN/A
Features, , ,
Buy Kawasaki Ninja ZX10-Rbikroy
Kawasaki 2019 for Sale

Kawasaki 2019

24,000 km
MEMBER
Tk 250,008
1 week ago
Kawasaki 80cc 2008 for Sale

Kawasaki 80cc 2008

16,000 km
MEMBER
Tk 30,000
3 weeks ago
Kawasaki , 2017 for Sale

Kawasaki , 2017

33,000 km
MEMBER
Tk 65,000
3 weeks ago
Kawasaki 90 2010 for Sale

Kawasaki 90 2010

50,000 km
MEMBER
Tk 50,000
1 month ago
Buy Other Bikesbikroy
Hero splendor plus 2012 for Sale

Hero splendor plus 2012

100 km
MEMBER
Tk 35,000
2 minutes ago
Runner Bullet ২০২০ 2020 for Sale

Runner Bullet ২০২০ 2020

3,500 km
MEMBER
Tk 45,000
21 minutes ago
Bajaj Discover 100 2011 for Sale

Bajaj Discover 100 2011

35,000 km
MEMBER
Tk 65,000
52 minutes ago
Yamaha RX হলুদ 2001 for Sale

Yamaha RX হলুদ 2001

100,000 km
MEMBER
Tk 19,500
55 minutes ago
+ Post an ad on Bikroy